চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০৭ আগস্ট, ২০২০

সর্বশেষ:

বিজয় ফুল তৈরিতে সেরা হতে চায় আবদুর রহমান

১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ৪:৫৯ পূর্বাহ্ণ

সেকান্দর আলম বাবর, বোয়ালখালী

বিজয় ফুল তৈরিতে সেরা হতে চায় আবদুর রহমান

বোয়ালখালী শুক্রবারের প্রতিবেদন

বিজয় ফুল তৈরি উৎসবে চট্টগ্রাম বিভাগীয় পর্যায়ে সেরা হয়েছে বোয়ালখালী সিরাজুল ইসলাম ডিগ্রি কলেজছাত্র আবদুর রহমান খান। ৮ বিভাগের ৮ জন জাতীয় পর্যায়ে প্রতিযোগিতায় নামছে আজ। ঢাকা শিল্পকলা একাডেমীতে আজ অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় দেশসেরা বিজয়ফুল তৈরিকারক হতে চায় আবদুর রহমান।

খরণদ্বীপ বিজান বিবি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে বোয়ালখালী সিরাজুল ইসলাম ডিগ্রি কলেজ পর্যন্ত লেখাপড়া চালিয়ে নিতে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয় শিক্ষার্থী আবদুর রহমান খানকে। বাবা মোজাম্মেল খান ও মাতা লুৎফর নেছার সন্তানকে পরিবারের আর্থিক অসচ্ছলতা এতটুকু দমিয়ে রাখতে পারেনি। প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিকে নিজেকে মেলে ধরার সুযোগ তার একাধিকবার হয়েছে; বিভিন্ন ক্ষেত্রে পুরস্কারও জিতেছেন বহুবার। স্কাউটিংসহ বিভিন্ন সহ-শিক্ষা কার্যক্রমে তার অংশগ্রহণ শিক্ষকদের সর্বদা বিমোহিত করেছে। লেখাপড়ায়ও তার ঝোঁক কোনো অংশে কম না। এবার সুযোগ পেয়ে অনেকদূর পাড়ি দিয়েছেন বিজয় ফুল তৈরি উৎসবে। বর্তমানে চট্টগ্রাম বিভাগীয় পর্যায়ে সেরা হয়ে আজ ১৩ ডিসেম্বর ঢাকায় জাতীয় পর্যায়ে চট্টগ্রামের প্রতিনিধিত্ব করবে সে। হতে চায় দেশসেরা বিজয়ফুল তৈরিকারক। এ প্রসঙ্গে কথা হয় আবদুর রহমান খানের সাথে। সে জানায়, কলেজের অধ্যক্ষ থেকে শুরু করে দপ্তরি পর্যন্ত সকলই তাকে উৎসাহ দিয়েছে বিজয়ফুল প্রতিযোগিতায় ভাল করতে। সহপাঠীরাতো সার্বক্ষণিক আন্তরিকতা দেখিয়েই গেছে। সে জানায়, বিজয় ফুল তৈরিতে আমার থিমটা সর্বদা অসাধারণ করার চেষ্টা করেছি। শাপলা ফুল আর জলে ভাসমান পাতা বিছানো, ছোট ছোট ঢেউ জলরাশির। বিজয় ফুলের পেছনে আমি সর্বদা একটি দৃশ্য দেখানোর চেষ্টা করেছি-তা হলো শহীদ মিনার। এর মাধ্যমে ভাষা আন্দোলন থেকে মুক্তিযুদ্ধ পর্যন্ত দীর্ঘ সময়ের বঞ্চনাকে ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছি। আমার কলেজের অধ্যক্ষ সমীর কান্তি দাশ, শিক্ষক সুলতানারা বেগম ও নাসরিন সুলতানাসহ সকল শিক্ষকের প্রতি এজন্য কৃতজ্ঞ।

তথ্যমতে, গত ২৮ অক্টোবর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করে বোয়ালখালী সিরাজুল ইসলাম কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ব্যবসায় শিক্ষার ছাত্র আবদুর রহমান খান। ৩১ অক্টোবর উপজেলা পর্যায়ে, ৪ নভেম্বর জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে জেলা পর্যায়ে, ২৫ নভেম্বর ফের একইস্থানে চট্টগ্রাম বিভাগের আওতাধীন সকল জেলাকে পিছনে ফেলে সে বিজয়ী হয়। সর্বশেষ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াছ হোসেন তাকে পুরস্কৃত করেন জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে।

কলেজের অধ্যক্ষ সমীর কান্তি দাশ জানান, আমার খুব খুশি লাগছে। কষ্ট করার পর শিক্ষার্থীরা একটি সম্মানজনক স্থানে পৌঁছলে এর চেয়ে বেশি

পাওনা শিক্ষকের আর থাকে না।
আবদুর রহমান খানের বিজয় ফুল তৈরিতে শৈল্পিকতার ছোঁয়া আছে জানিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আছিয়া খাতুন পূর্বকোণকে বলেন, অবশ্যই বোয়ালখালীর জন্য অত্যন্ত খুশির খবর এটি।

The Post Viewed By: 239 People

সম্পর্কিত পোস্ট