চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০

সর্বশেষ:

উ. জেলা আ. লীগের সম্মেলন আজ

৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ৫:৩৮ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

ফজলে করিম এমপিকে সভাপতি চান অনেকে

উ. জেলা আ. লীগের সম্মেলন আজ

ব্যালটে নেতা নির্বাচনের পক্ষে কাউন্সিলররা

উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন আজ (৭ ডিসেম্বর)। নগরীর লালদিঘি ময়দানে সকাল ১০ টায় শুরু হবে এ সম্মেলন। নিরাপত্তার স্বার্থে মাঠের চারপাশে ৩৬টি সিসি ক্যামেরা থাকবে। সম্মেলনের উদ্বোধনী অধিবেশন শেষে কাজীর দেউড়ির ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে কাউন্সিল অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলনে কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত থাকবেন। উত্তর জেলার সাতটি উপজেলা ও ৯টি পৌরসভার ৩৬৮ কাউন্সিলরের উপস্থিত থাকারও কথা রয়েছে।

সম্মেলনে জোর আলোচনা চলছে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে। বর্তমান সাধারণ সম্পাদক এম এ সালাম, ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এ.বি.এম ফজলে করিম চৌধুরী এবং সহ-সভাপতি অধ্যাপক মো. মাঈনুদ্দিন এর নাম সভাপতি পদে শোনা যাচ্ছে। এদিকে সাধারণ সম্পাদক পদে উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এ টি এম পেয়ারুল ইসলাম, বর্তমান সাংগঠনিক সম্পাদক দেবাশীষ পালিত, নির্বাহী সদস্য ও মিরসরাই উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন, সদ্যবিদায়ী মিরসরাই উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ সদস্য শেখ আতাউর রহমান, বর্তমান কমিটির সম্পাদক ম-লীর সদস্য আবুল কালাম আজাদ, ইউনুচ গণি চৌধুরী, জসীম উদ্দিন, বেদারুল আলম চৌধুরী বেদারেরসহ কয়েকজনের নাম শোনা যাচ্ছে।

উত্তরজেলার সভাপতি পদে রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এ.বি.এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপিকে দেখতে চান উত্তরজেলার বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ এবং নেতাকর্মিরা। গত প্রায় দশমাস আগে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব পাওয়ার পর তিনি উত্তরজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে আমূল পরিবর্তন, সাংগঠনিক সুশৃঙ্খল অবস্থা ফিরিয়ে এনেছেন, তাতে ফজলে করিমের বিকল্প খুঁজতে চাননা অনেকে।

সংগঠনের বর্তমানে পদপদবিতে থাকা অনেক নেতার দাবি, উত্তরজেলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিলে ব্যালটের মাধ্যমে নেতা নির্বাচন করা হলে ওই কমিটি স্বচ্ছ হবে এবং প্রশ্নবিদ্ধ হবে না। বিভিন্ন নেতার সঙ্গে আলাপ করে জানা যায়, উত্তরজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুর আলম চৌধুরী গত ফেব্রুয়ারি মারা গেলে সিনিয়র সহ-সভাপতি হিসেবে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব পান এ.বি.এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি। তাঁর দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে পাল্টে যায় উত্তরজেলা আওয়ামী লীগের পুরনো চেহেরা। দীর্ঘ কয়েক যুগ অবহেলিত এ সংগঠনের কার্যালয়ের চেহারা উন্নয়নের ছোঁয়ায় বদলে দেন ফজলে করিম এমপি। গত প্রায় দশ মাসে তিনি ঘুণে ধরা উত্তরজেলা আওয়ামী লীগের অফিসটির আমূল পরিবর্তনের অংশ হিসেবে চেয়ার টেবিলসহ অবকাঠামোর ব্যাপক উন্নয়ন করেন। শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত করে তোলেন। বৃদ্ধি করেন অফিসের সৌন্দর্য। বিগত রমজান মাসে বৃহৎ আকারে সুশৃঙ্খলভাবে ইফতার পার্টি করেন। বিভিন্ন জাতীয় দিবস সুন্দর করে সবাইকে নিয়ে পালন করেছেন। এছাড়াও উত্তর জেলার উদ্যোগে বিভিন্ন অনুষ্ঠান জাকজমক ও সুশৃঙ্খলাভাবে পালন করে এসেছেন। আগামীতে উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের নিজস্ব ভবন করার পরিকল্পনা করেছেন তিনি। এছাড়া প্রত্যক উপজেলায় নিজস্ব কার্যালয় করার জন্য ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে ১০ লক্ষ টাকা করে অনুদান ঘোষণা করেছেন ইতিমধ্যে। নিজ নির্বাচনী এলাকা রাউজানের ১৪ ইউনিয়ন ও পৌরসভায় ১৬টি নিজস্ব জায়গায় স্থায়ী দলীয় কার্যালয় নির্মাণ করেছেন তিনি। এছাড়া নির্মাণ করা হয়েছে স্থায়ী ১৪টি ইউপি কমপ্লেক্স। ইতিমধ্যে উত্তরজেলার প্রত্যক উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন তার উপস্থিতিতে হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক নেতা বলেন, ‘যারা ইতিপূর্বে উত্তরজেলার সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদে দীর্ঘদিন ছিলেন, তাদের কারণে উত্তরজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের কোন উন্নয়ন হয়নি। সাংগঠনিক ভীত, সুশৃঙ্খলতায় নানা সমস্যা রয়েছে। একারণে কাজের মানুষ হিসেবে ফজলে করিমের নেতৃত্ব খুবই প্রয়োজন উত্তরজেলা আওয়ামী লীগে’।
এ প্রসঙ্গে সংগঠনের বর্তমান যুগ্ম সম্পাদক ইউনুছ গণি চৌধুরী বলেন, ‘আমি মনে করি উত্তর চট্টগ্রামের সমস্ত কাউন্সিলরদের মতামত ব্যালটের পক্ষে। ব্যালটের মাধ্যমে নেতা নির্বাচন হওয়া দরকার। তাহলে স্বচ্ছতা আসবে এ সম্মেলনের’।

The Post Viewed By: 282 People

সম্পর্কিত পোস্ট