চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০

সর্বশেষ:

নগরীতে সড়কের উপর চাপ কমাবে ওয়াটার বাস : মেয়র

৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ৫:২৭ পূর্বাহ্ণ

নগরীতে সড়কের উপর চাপ কমাবে ওয়াটার বাস : মেয়র

সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, সড়কে চাপ কমাতে নদীপথের ব্যবহার বাড়াতে হবে। বিশে^র উন্নত দেশগুলো তাদের নদীর সর্বোচ্চ ব্যবহার করে থাকে। এক্ষেত্রে আমরা এখনো পিছিয়ে আছি। তিনি আরো বলেছেন, চট্টগ্রাম শহরের ট্রাফিক যানজটের কারণে বিমান যাত্রীদের বিমান শিডিউল ধরতে অনেক সময় ভোগান্তির শিকার হতে হয়। এই ভোগান্তি থেকে উত্তোরনের জন্য নগরবাসী দীর্ঘদিন থেকে দাবি দিয়ে আসছিল। কর্ণফুলী নদীতে ওয়াটার বাস চালু এই দাবির মধ্যে অন্যতম। এস.এস ট্রেডিং কর্পোরেশন নগরবাসীর দাবির প্রতি সম্মান জানিয়ে কর্ণফুলী নদীতে ওয়াটার বাস সার্ভিস চালুর উদ্যোগকে অত্যন্ত সময়োপযোগী বলে তিনি মন্তব্য করেন। এতে যেমন মানুষের সময় বাঁচাবে, তেমনি শব্দ ও বায়ু দূষণ থেকে যাত্রীদের রক্ষা করবে এবং শহরের

রাস্তার উপরে অনেক চাপ কমাতে সাহায্য করবে। এক কথায়, চট্টগ্রামে বিমান যাত্রীরা অল্প ও নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে গন্তব্যে পৌঁছতে পারবে। তিনি গতকাল শুক্রবার বিকেলে ওয়াটার বাস কর্তৃপক্ষের আমন্ত্রণে কর্ণফুলী নদীর সদরঘাট থেকে শাহ আমানত বিমান বন্দর পর্যন্ত চালু হওয়া ওয়াটার বাস পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের সাথে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

এসময় তিনি আরো বলেন, প্রতিদিন গড়ে ৮ হাজার যাত্রী চট্টগ্রাম হযরত শাহ্ আমানত আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে আগমন ও বর্হিগমন করার সুযোগ রয়েছে। বর্তমানে চট্টগ্রাম শহর থেকে হযরত শাহ্ আমানত আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর পৌঁছতে গড়ে প্রায় ২ ঘণ্টা সময় লাগে। আবার অনেক সময় এর বেশিও সময় লেগে থাকে। প্রায়শই ভারী যানবহন চলাচলের কারণে যাত্রীদের ভোগান্তি ও ফ্লাইট ধরতে না পারার ঘটনা অহরহ ঘটে থাকে।

পরিদর্শনকালে মেয়র সদরঘাট ওয়াটার বাস টার্মিনাল পৌঁছালে ওয়াটার বাস কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার শাখাওয়াত হোসেন মেয়রকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে টার্মিনালের সুযোগ সুবিধাদিসমূহ দেখান। এরপর সিটি মেয়র এবং আমন্ত্রিত অতিথিদের নিয়ে বিকেল পৌণে তিনটায় সদরঘাট ওয়াটার বাস টার্মিনাল থেকে চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমান বন্দরের উদ্দেশ্যে রওনা হন এবং ৩ টা ১০ মিনিটে পতেঙ্গা ওয়াটার বাস টার্মিনালে পৌঁছান। সেখান থেকে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত শাটলবাস যোগে ৩ মিনিটে বিমান বন্দর পৌঁছেন। এতে মোট সময় ব্যয় হয়েছে প্রায় ৩০ মিনিট। সেখান থেকে মেয়রসহ অন্যান্য অতিথিদের নিয়ে পুনরায় সদরঘাট টার্মিনালে ফিরে আসে ওয়াটার বাসটি।

পরিদর্শনকালে রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান এহসানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল, কাউন্সিলর সালেহ আহমদ চৌধুরী, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কলিম সরওয়ার, নগর আওয়ামীলীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মশিউর রহমান চৌধুরী, কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব, সি-প্লাস’র সম্পাদক মো. আলমগীর অপু, মেয়রের একান্ত সচিব আবুল হাশেম, সহকারী একান্ত সচিব রায়হান ইউসুফ, এস এস ট্রেডিং এর ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মো. সাববাব হোসেন, জসিম উদ্দিন চৌধুরী, টিএস ড্রেজিং এর পিআর এডভাইজার এপ্রোচ পি আর গ্লোবার লি. এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়লা আবেদীন সহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।-বিজ্ঞপ্তি

The Post Viewed By: 146 People

সম্পর্কিত পোস্ট