চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০

সর্বশেষ:

সাঙ্গু থেকে বালু উত্তোলন বন্ধ করল সম্মিলিত জনতা

৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ৫:০৫ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা, সাতকানিয়া

নেতৃত্বে তিন ইউপি চেয়ারম্যান

সাঙ্গু থেকে বালু উত্তোলন বন্ধ করল সম্মিলিত জনতা

সাতকানিয়া (একাংশ)’র স্থানীয় সাংসদ নজরুল ইসলাম চৌধুরীর নির্দেশে তিন ইউপি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে সাঙ্গু নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধ করে দিয়েছে স্থানীয় জনতা। গত ৪ ডিসেম্বর বিকালে উপজেলার বাজালিয়া ইউনিয়নের চৌধুরীপাড়া এলাকায় বালু উত্তোলন বন্ধে ড্রেজার মেশিন থেকে পাইপগুলো খুলে নেয় জনতা।

স্থানীয়রা জানান, বিগত মাস-দেড়েক আগে রেলপথ নির্মাণের জন্য তমা গ্রুপের নাম ব্যবহার করে সাঙ্গু নদী থেকে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন শুরু করেন বান্দরবানের সাবেক যুবলীগ নেতা মো. হোসেন ও কাঞ্চনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মুখলেছুর রহমান জাকের। এরপর বালু উত্তোলন বন্ধে বাজালিয়া মোটর স্টেশনে স্থানীয় জনতা মানববন্ধন করলেও বন্ধ হয়নি বালু উত্তোলন। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়রা এমপিকে অভিযোগ করলে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে গত ২৫ নভেম্বর উপজেলা আইন শৃঙ্খলা ও সমন্বয় সভায় অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে মৌখিকভাবে কঠোর নির্দেশনা প্রদান করেন। এর কয়েকদিন পর ঘটনাস্থলে গিয়ে বালু উত্তোলন বন্ধ করে দেন এসি (ল্যান্ড)। তবে নদী থেকে সরিয়ে নেননি বালু উত্তোলনে ব্যবহৃত ড্রেজার মেশিনগুলো। বিষয়টি স্থানীয় চেয়ারম্যান ও এলাকাবাসী এমপিকেক পুনরায় অবগত করলে তিনি দোহাজারী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান বেগ, বাজালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান তাপস কান্তি দত্ত ও পুরানগড় ইউপি চেয়ারম্যান আ.ফ.ম মাহবুবুল হক সিকদারকে জনগণকে সাথে নিয়ে বালু উত্তোলনে ব্যবহৃত ড্রেজার মেশিনের পাইপ খুলে নিয়ে বালু উত্তোলন কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দেন। এরই ধারাবাহিকতায় তিন চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে স্থানীয় জনতা বালু উত্তোলনে ব্যবহৃত ড্রেজার মেশিনের পাইপ খুলে বালু উত্তোলন কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়। খবর পেয়ে সাতকানিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে যেকোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এলাকায় অবস্থান নেন।

The Post Viewed By: 84 People

সম্পর্কিত পোস্ট