চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই, ২০২০

সর্বশেষ:

অপহরণ নয়, স্বেচ্ছায় বন্ধুর সাথে গিয়েছিলেন

২০ নভেম্বর, ২০১৯ | ২:৪৪ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

কাপ্তাই রাস্তার মাথা থেকে দুই সন্তানসহ উধাও নারী

অপহরণ নয়, স্বেচ্ছায় বন্ধুর সাথে গিয়েছিলেন

নগরীর চান্দগাঁও থানাধীন কাপ্তাই রাস্তার মাথা এলাকা থেকে দুই সন্তান নিয়ে উধাও হওয়া নারী সিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের তৎপরতায় ফিরে এসেছেন। সন্তানসহ ওই নারী অপহরণের শিকার হয়েছেন ভেবে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট উদ্ধারে নেমেছিলেন। ফিরে এসে ওই নারী জানিয়েছেন, তিনি স্বেচ্ছায় প্রেমিকের সঙ্গে চলে গিয়েছিলেন। গতকাল মঙ্গলবার সকালে ওই নারী ও দুই সন্তান নিয়ে নগরীতে ফিরে আসার পর কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট তাদের হেফাজতে নেয়। এরপর তাদের জিডিমূলে নগরীর চান্দগাঁও থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। গত ১২ নভেম্বর ওই নারী দুই মেয়ে ও মাকে নিয়ে নগরীর আমানবাজারের নানার বাড়ি থেকে সিএনজি ট্যাক্সি করে বোয়ালখালী যাওয়ার পথে চান্দগাঁও থানাধীন কাপ্তাই রাস্তার মাথা এলাকা থেকে তিনি উধাও হয়ে যান। কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মঈনুল ইসলাম জানান, ‘মিডিয়া এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই নারীর ঘটনাটিকে অপহরণ বলে প্রচার করা হয়েছে। ওই নারী ও সন্তান নিয়ে

সিএনজি ট্যাক্সি উধাও হয়ে গেছেন। কিন্তু বাস্তবে ঘটনা ভিন্ন। ওই নারী নিজেই তার বন্ধুর সঙ্গে ঢাকায় চলে গিয়েছিলেন।’ তিনি ঘটনার বর্ণনা দিয়ে বলেন, ওই নারীর স্বামী প্রবাসী। তাদের চার বছর ও দুই বছর বয়সী দুই মেয়ে আছে। বাবার বাড়ি এবং শ্বশুর বাড়ি বোয়ালখালী উপজেলায়। গত ১২ নভেম্বর ওই নারী দুই মেয়ে ও মাকে নিয়ে নগরীর আমানবাজারে নানার বাড়ি থেকে সিএনজি ট্যাক্সি করে বোয়ালখালী উপজেলার শাকপুরায় নিজ বাড়িতে যাচ্ছিলেন। চান্দগাঁও থানাধীন কাপ্তাই রাস্তার মাথা এলাকায় যাবার পর ওই নারী তার মায়ের কাছে একটি শাড়ি কিনে দেওয়ার আবদার করেন।

অটোরিকশা থামিয়ে তার মা শাড়ির দোকানে ঢুকলে ওই নারী সিএনজি ট্যাক্সি চালককে নগরীর দামপাড়ায় শিল্পকলা একাডেমিতে নিয়ে যেতে বলেন। সেখানে আগে থেকে নারীর বন্ধু দাঁড়িয়েছিলেন। পথে ওই নারীর মা নেমে দোকানে গিয়ে ফিরে এসে দেখে সিএনজি ট্যাক্সিটি উধাও হয়ে গেছে। চালক গাড়ি সেখানে নিয়ে যাবার পর ওই নারী সন্তানদের নিয়ে তার বন্ধুর সঙ্গে ঢাকায় চলে যান।

এর পর ওই নারীর মা চান্দগাঁও থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। এতে তিনি বলেন, কাপ্তাই রাস্তার মাথায় সিএনজি ট্যাক্সি দাঁড় করিয়ে দোকানে গিয়েছিলেন তিনি। মিনিট দশেক পর ফিরে এসে দেখেন, মেয়ে-নাতনিসহ সিএনজি ট্যাক্সিটি উধাও হয়ে গেছে।

The Post Viewed By: 105 People

সম্পর্কিত পোস্ট