চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০২০

৮ মে, ২০১৯ | ২:২৭ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা

কারাগারে আবদুর রহমানের মৃত্যু, এলাকায় উত্তেজনা

কারাগারে থাকা আনোয়ারার আবদুর রহমানের (৪৮) মৃত্যু হয়েছে। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত সোমবার দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। গতকাল (মঙ্গলবার) বিকেলে ময়না তদন্ত শেষে তার লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। পরে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়েছে। তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এ ব্যাপারে চাপা ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় অপ্রীতিকর ঘটনার আশংকা করা হচ্ছে।
জানা যায়, আনোয়ারা উপজেলার গুন্দীপ গ্রামে বসতভিটার সীমানা বিরোধ নিয়ে গত ১৭ মার্চ দুপুর ১টায় দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে বেশ কয়েক জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে আব্দুর রহমানও ছিলেন। এ ঘটনায় দু’পক্ষই আনোয়ারা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। এক পক্ষের লিখিত অভিযোগটি মামলা হলেও অপর পক্ষের মামলা পুলিশ নেয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে। পরে ২৪ মার্চ মো. আনোয়ার হোসেন বাফষ হয়ে চট্টগ্রাম জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সিআর মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-৬৪/১৯। আদালত শুনানি শেষে মামলাটি রেকর্ডভুক্ত করার জন্য আনোয়ারা থানাকে নির্দেশ দেন। ৩০ মার্চ আনোয়ারা থানায় মামলাটি রেকর্ড হয়। এ মামলার সাক্ষী হলেন আবদুর রহমান। এদিকে থানায় অপর পক্ষের ফারুক বাদি হয়ে করা মামলায় ২নং আসামি ছিলেন আবদুর রহমান। গত ২৩ মার্চ আবদুর রহমান আদালতে আত্মসমর্পণ করতে গেলে তাকে আদালত জেল হাজতে পাঠায়। কারাগারে থাকা অবস্থায় গত ৫ মে অসুস্থ হয়ে পড়লে রাত ৯টা ৪৫ মিনিটে তাকে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ৬ মে দুপুর ১টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। গতকাল (মঙ্গলবার) বিকেলে ময়না তদন্ত শেষে পুলিশ তার লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে। বিকেল সাড়ে ৫টায় আনোয়ারা উপজেলার গুন্দীপ গ্রামে জানাজা শেষে পারিবারিক

কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। তিনি মৃত আবদুস ছামাদের পুত্র। তার চাচাত ভাই ইছহাক জানান, ১৭ মার্চ সংঘটিত ঘটনায় থানায় এক পক্ষের মামলা নিলেও পুলিশ আমাদের মামলা নেয়নি। পরে আমাদের পক্ষ থেকে কোর্টে মামলা দায়ের করা হয়। বাড়িরওয়াল দেয়াকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে। আবদুর রহমান একজনকে বাঁচাতে গিয়ে তিনি নিজেও প্রতিপক্ষের হাতে আহত হয়েছিলেন।
সূত্রে প্রকাশ, জানাজার সময় স্থানীয়দের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। তবে বড় ধরনের কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 213 People

সম্পর্কিত পোস্ট