চট্টগ্রাম শনিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

৬ মে, ২০১৯ | ২:২৩ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা

বাঁশখালীতে প্রাইভেট পড়ানোর নামে ছাত্রীকে ধর্ষণ ধর্ষক শিক্ষককে পুলিশ খুঁজছে

বাঁশখালী উপজেলার পশ্চিম চাম্বলে আজিজিয়া মাদ্রাসায় ৭ম শ্রেণীর ছাত্রীকে প্রাইভেট পড়ানোর নামে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক মো. ফয়েজুল্লাহ ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ ওঠেছে। গত ২৪ এপ্রিল রাতে ধর্ষণের শিকার হওয়া ছাত্রীটির মা বাদি হয়ে বাঁশখালী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। মামলা দায়েরের পর থেকে পুলিশ খুঁজে বেড়াচ্ছে মনকিরচর গ্রামের বাসিন্দা, আসামি ধর্ষক মো. ফয়েজুল্লাহকে। অভিযুক্ত এই শিক্ষক মাদ্রাসা ছেড়ে পালিয়ে শহরে আত্মগোপনে রয়েছেন বলে জানা গেছে। জানা যায়, পশ্চিম চাম্বল ডেপুটিঘোনা এলাকাস্থ আজিজিয়া কাশেমুল মাদ্রাসায় ধর্ষণের শিকার হওয়া ছাত্রীসহ তিনজনকে সন্ধ্যারদিকে মাদ্রাসার শিক্ষক মো. ফয়েজুল্লাহ প্রাইভেট পড়াতেন। গত ২৪ এপ্রিল এই শিক্ষক অন্য দুই ছাত্রীকে তাড়াতাড়ি ছুটি দিয়ে ৭ম শ্রেণীর ছাত্রীটিকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ। ছাত্রীটি বাড়িতে গিয়ে তার মাকে বিষয়টি জানালে পরিবারের সদস্যরা মাদ্রাসার প্রিন্সিপালকে অবহিত করেন। মামলার বাদি জানান, মাদ্রাসার শিক্ষকের বিরুদ্ধে আমরা আইনি সহায়তার জন্য প্রশাসনের কাছে মামলা দায়ের করেছি। আমরা ন্যায় বিচার দাবি করি। বাঁশখালী থানার অফিসার

ইনচার্জ (ওসি) কামাল হোসেন বলেন, মাদ্রাসার ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনার পর থেকে আসামি পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের জন্য তদন্ত কর্মকর্তা বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 314 People

সম্পর্কিত পোস্ট