চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

মহেশখালী সংস্কারবিহীন সড়কে চলাচলে দুর্ভোগ

১ জুলাই, ২০১৯ | ১২:৪৩ পূর্বাহ্ণ

এ.এম হোবাইব সজীব, মহেশখালী

মহেশখালী সংস্কারবিহীন সড়কে চলাচলে দুর্ভোগ

উপজেলার সৈকত সড়ক হিসাবে পরিচিত মাতারবাড়ি ইউনিয়নের মিয়াজী পাড়া টু বলির পাড়া সড়কটির বেহাল দশা। প্রায় ১৪ বছর ধরে সংস্কার ও উন্নয়নের অভাবে বর্তমানে সড়কটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ছে। এতে নিত্যদিনের চলাচলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে জনসাধারণ ও শিক্ষার্থীদের।
জানা গেছে, সর্বশেষ গত ২০০৫ সালের দিকে সাবেক ইউপি সদস্য মো. আব্দুল বারেক সড়কটি সংস্কার করেছিলেন। পরবর্তীতে স্থানীয়রা নিজ উদ্যোগে কয়েকবার সড়কে মাটি দিয়ে সংস্কার কাজ করলেও সড়কটির আর কোন সংস্কার বা উন্নয়নের উদ্যোগ নেননি বর্তমান জনপ্রতিনিধিরা। অভিযোগ উঠেছে, সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের খামখেয়ালি ও দায়িত্বহীনতার কারণে জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কটি ভাঙনসহ নষ্ট হয়ে যাওয়ায় এ দৈন্যদশা তৈরি হয়েছে। এতে জনসাধারণের পাশাপাশি লবণ, ধান চাষ ও চিংড়ি চাষে নিয়োজিত সংশ্লিষ্টরা সব ধরনের পণ্য আনা-নেয়ার ক্ষেত্রে হয়রানির কবলে পড়েছে। এ অবস্থার প্রেক্ষিতে চলতি বর্ষা মৌসুমের শুরুতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সড়কটি অবিলম্বে চলাচলের উপযোগী করতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় বিক্ষুব্ধ জনসাধারণ।
মাতারবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী জাহেদ হোসাইন ও সিরাতুল মোস্তাকিম বলেন, প্রতিবছর বর্ষা মৌসুমে আমাদের মিয়াজী পাড়া টু বলির পাড়া সড়ক দিয়ে যাতায়াত করা দুষ্কর হয়ে পড়ে। কোমর পরিমাণ পানির ওপর দিয়ে স্কুলে যেতে হয় আমাদের। রাস্তায় বসানো অর্ধেক ইট দু’ ধারে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। অর্ধেকের বেশি রয়েছে কাঁচা রাস্তা। দেখলে মনে হবে এখানে কোন রাস্তার অস্তিত্ব নেই।
সাবেক ইউপি সদস্য বশির আহমদ বলেন, পরিকল্পিতভাবে উন্নয়ন না হওয়ায় ও সঠিক তদারকির অভাবে প্রশাসনের চরম ব্যর্থতার কারণে গ্রামীণ জনপদের গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি উন্নয়নের ছোঁয়া লাগছে না। জরুরি ভিত্তিতে সড়কটি মেরামতের দাবি জানান তিনি।
মাতারবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাস্টার মো. উল্লাহ বলেন, পরিষদের বরাদ্দ থেকে মাতারবাড়ির বিভিন্ন সড়কের কাজ চলছে। ঐ সড়কটির ব্যাপারে আমার নজর রয়েছে। বরাদ্দ হাতে আসলে কাজ শুরু করা হবে।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 302 People

সম্পর্কিত পোস্ট