চট্টগ্রাম বুধবার, ২০ জানুয়ারি, ২০২১

সর্বশেষ:

৩ ডিসেম্বর, ২০২০ | ২:১২ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক 

শীত ও সংক্রমণে বিপজ্জনক করোনাভাইরাস

চট্টগ্রামে করোনার সংক্রমণ শনাক্তের আট মাস শেষ হলেও কিছুতেই স্বস্তি ফিরছে না। চলতি বছরের এপ্রিলে চট্টগ্রামে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হলেও প্রথম পর্যায়ে তা কিছুটা উর্ধ্বমুখী ছিল। যদিও আগস্ট, সেপ্টেম্বর এসে শনাক্ত কিছুটা নিম্মমুখী অবস্থানে ছিল। তবে দুই মাস আগে সংক্রমণ নিম্মমুখী হওয়ায় যে স্বস্তি ফিরছিল, তা এখন উধাও হতে চলেছে। কেননা দেশে ফের মরণ ভাইরাসের সংক্রমণ উর্ধ্বমুখী। শুধুমাত্র গেল তিন মাসের পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, বিদায়ী নভেম্বর মাসেই শনাক্ত হয়েছে সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসের সমান।

শুধু সংক্রমনই নয়, করোনার ছোবলে মৃত্যুর সংখ্যাও গেল মাস থেকে কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে। দেশে করোনার পরিস্থিতি উদ্বেগ বাড়ালেও কিছুটা স্বস্তি দিচ্ছে করোনা জয়ীর সংখ্যা। দৈনিক সংক্রমিতের তুলনায় সুস্থ হওয়া রোগীর সংখ্যা বেশি হওয়ায় দেশে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা আরও কমেছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি এখন আর শীত নির্ভর নয়, দিন গড়ালেই সামনের দিনে এ সংক্রমণ আরও বাড়বে। তাই বিদ্যমান পরিস্থিতি থেকে বাঁচতে স্বাস্থ্যবিধি মানা এবং অধিকতর সচেতনা বাড়ানোর তাগিদ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্য পর্যালোচনা করে দেখা যায়, পহেলা সেপ্টেম্বরে চট্টগ্রামে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ছিল ১৭ হাজার ১১০ জন। কিন্তু পরবর্তী মাসে তথা পহেলা অক্টোবরে এসে এ সংখ্যা ১৮ হাজার ৮০৫ জনে পৌঁছায়। অর্থাৎ পুরো সেপ্টেম্বর মাসে শনাক্ত হয় ১ হাজার ৭৪৯ জন। কিন্তু পরবর্তী মাসে এসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয় আরও ২ হাজার ৪৩৭ জন। আর গেল নভেম্বর মাসেই শনাক্ত হয় ৪ হাজার ৩৮ জন। অর্থাৎ অক্টোবরের তুলনায় দ্বিগুণ রোগী শনাক্ত হয়েছে গেল নভেম্বর মাসে।

যদিও আশা জাগিয়েছে সুস্থতা। কেননা করোনা জয়ী রোগীর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি গেল নভেম্বর মাসে। ওই মাসে সুস্থ হয়ে ওঠেন ৬ হাজার ৩৪১ জন। আর অক্টোবরে ১ হাজার ৮১ জন এবং সেপ্টেম্বর মাসে ২ হাজার ৬০২ জন সুস্থ হয়ে ওঠেন।

এমন পরিস্থিতির মধ্যেই গেল ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ২৬০ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ পাওয়া যায়। যাদের ২১৩ জনই নগরীর বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা। এ নিয়ে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ২৫ হাজার ৫৯৪ জনে এসে দাঁড়িয়েছে। আক্রান্ত ছাড়াও এ দিন আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃত রোগীর সংখ্যা ৩২০ জনে দাঁড়িয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে প্রকাশিত চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের কোভিড-১৯ সর্বশেষ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়।

তথ্যে বলা হয়, চট্টগ্রামের সরকারি-বেসরকারি আটটি ও কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে সর্বমোট ১ হাজার ৩৯০ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়। এরমধ্যে এ ২৬০ জনের ফলাফল পজেটিভ পাওয়া যায়। এছাড়া সুস্থতার সংখ্যা ২২ হাজার ৭২৭ জনে দাঁড়িয়েছে।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 142 People

মন্তব্য দিন :

সম্পর্কিত পোস্ট