চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২১

সর্বশেষ:

২৪ নভেম্বর, ২০২০ | ২:৫০ অপরাহ্ণ

সৌমিত্র চক্রবর্তী, সীতাকুণ্ড

সীতাকুণ্ড পৌরসভা: সরব আ. লীগ, নীরব বিএনপি

সীতাকুণ্ড পৌরসভার বর্তমান মেয়র আওয়ামী লীগ নেতা বদিউল আলম এবারও দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশী। তবে এবার একটু কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে দলীয় সমর্থন। তাকে ঠেকিয়ে প্রার্থী হতে চান অন্তত দেড় ডজনখানেক দলীয় নেতাকর্মী। মনোনয়নপ্রত্যাশীরা দলীয় হাই কমান্ডের সাথে লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন। সরকারি দলের নেতাকর্মীদের দৌড়ঝাঁপ শুরু হলেও অনেকটা আড়ালে থেকে এগুচ্ছে বিএনপি-জামায়াতসহ অন্য দলগুলো। কৌশলে নিজের প্রার্থিতার কথা প্রচার করছেন অনেকেই।

ক্ষণ গণনা শেষ। আগামী মাসেই ভোটগ্রহণ। তফসিল ঘোষণার অনেক আগ থেকে সরগরম ছিল আওয়ামীলীগ। মনোনয়নপ্রত্যাশীরা দৌড়ঝাঁপ চালিয়ে আসছেন দীর্ঘদিন ধরে। সময় ফুরিয়ে এসেছে। বসে নেই প্রার্থীরা। বিভিন্নভাবে নিজেদের তুলে ধরছেন। প্রার্থিতার কথা জানান দিচ্ছেন। এভাবে মাঠে সরব রয়েছেন আ. লীগ থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশীরা।

আ. লীগ থেকে দলীয় সমর্থনের পেতে মাঠে নেমেছেন বর্তমান মেয়র ও সীতাকুণ্ড পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা বদিউল আলম, পৌর কাউন্সিলর আওয়ামী লীগ নেতা জুলফিকার আলী মাসুদ শামীম, কাউন্সিলর মাইমুন উদ্দিন মামুন, ব্যবসায়ী নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাসেম ওয়াহেদী, আওয়ামী লীগ নেতা সিরাজদৌলা ছট্টু, আওয়ামী লীগ নেতা গোলাম রাব্বানী, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সাংবাদিক মোহাম্মদ ইউসুফ, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আব্দুস সামাদ, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জাহেদ চৌধুরী ফারুক, মোহাম্মদীয়া গ্রুপের পরিচালক সাবেক ছাত্রনেতা মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন, ইঞ্জিনিয়ার মো. জাহাঙ্গীর, সাবেক ছাত্র নেতা ভুঁইয়া সামি আল মুজতবা শুভ। এছাড়াও আরো কয়েকজনের নাম শোনা যাচ্ছে।

বিএনপি থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশীরা হলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল মনছুর, পৌর বিএনপির সভাপতি ইউসুফ নিজামী ও মোহাম্মদ আলমগীর। এছাড়াও সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম নাগরিক কমিটির ব্যানারে নির্বাচন করবেন বলে জানান দিয়েছেন। সম্ভাব্য প্রার্থীরা দৌড়ঝাঁপ করলেও অনেকটা কৌশলে এগুচ্ছে বিএনপি। এখনো মাঠে সরব নেই জাপা, জামায়াতসহ অন্য দলের প্রার্থীরা।

আ. লীগ প্রার্থীদের মধ্যে কয়েকজনকে নিয়ে বেশি আলোচনা হচ্ছে। স্থানীয়ভাবে এমপি দিদারুল আলম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল বাকের ভূঁইয়া ও উপজেলা চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম আল মামুন নিজের অনুসারী কাছের লোকদের মেয়র পদে প্রার্থী করতে মরিয়া হয়ে চেষ্টা করেছেন। পছন্দের প্রার্থীদের মনোনয়ন পেতে লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন শীর্ষ তিন নেতা। এতে নির্বাচনী উত্তাপ বেড়েই চলেছে।

একাধিক সম্ভাব্য প্রার্থী থাকলেও তিনজনের নাম কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের কাছে পাঠানো হচ্ছে বলে সূত্র জানায়।

প্রসঙ্গতঃ সীতাকুণ্ড পৌরসভার নয়টি ওয়ার্ডে ভোটার সংখ্যা ৩৪ হাজার ৮১৩ জন। ভোটকেন্দ্র ১৭টি। ভোটকক্ষ ৯৬টি।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ৩১ ডিসেম্বর সীতাকুণ্ড পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হন বদিউল আলম।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 140 People

সম্পর্কিত পোস্ট