চট্টগ্রাম রবিবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

২৮ এপ্রিল, ২০১৯ | ৩:১৩ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

চেক প্রতারণা মামলায় চসিক স্কুলের সাবেক প্রধান শিক্ষক গ্রেপ্তার

চেক প্রতারণা মামলায় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত ফিরোজ শাহ কলোনি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষিকা গতকাল শনিবার গ্রেপ্তার হয়েছেন। তার নাম ফেরদৌস আর বেগম। আকবর শাহ থানা পুলিশ তাকে তার বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে গতকাল আদালতে প্রেরণ করে। আকবর শাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ওই শিক্ষিকাকে সকাল ৮টার দিকে গ্রেপ্তার করে ১২টার দিকে আদালতে প্রেরণ করা হয়।
মামলার বাদি পক্ষের আইনজীবী অক্ষয় কুমার ভট্টাচার্য জানান, নগরীর অক্সিজেন আবাসিক এলাকায় বসবাসকারী নিলুফার আক্তার নামে এক গৃহবধূর কাছ থেকে পূর্ব পরিচয়ের সূত্রে পরিশোধের শর্তে ডাচ বাংলা ব্যাংকের দুটি পৃথক চেকমূলে ১০ লাখ টাকা গ্রহণ করেন। ওই টাকা পরিশোধের বিপরীতে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষিকা ২২/১০/২০১৮ ও ০২/০১/২০১৯ তারিখ দিয়ে মামলার বাদি নিলুফার আক্তারকে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড ও আর নিজাম রোড শাখার চেক নং যথাক্রমে গঈঊ ৫৫৯৮২২৫ ও গঈঊ ৫৫৯৮২২৬ মূলে মোট ১০ লাখ টাকার চেক দেন। গত ২ জানুয়ারি মামলার বাদি নিলুফার আক্তার চেক দুইটি তার একাউন্টে জমা দিলে তা ডিজঅনার হয়। বিষয়টি জানানোর পরও কোন সুরাহার উদ্যোগ না নেয়ায় তিনি ওই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে পৃথকভাবে মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে চেক জালিয়াতির মামলা করেন। মামলা নং ৬৭/২০১৯ ও ৮৯/২০১৯। গত ১১ এপ্রিল মামলা নং ৮৯/২০১৯ এর শুনানির দিন ধার্য থাকা সত্ত্বেও অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষিকা আদালতে হাজির না হওয়ায় তার বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট জারি হয়। গতকাল পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।
উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত ইমরাতুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকার দায়িত্বপালনকালে তিনি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বেতন, শিক্ষকদে এমপিও’র টাকাসহ বিবিধ খাত হতে আয় বাবদ প্রায় ৫৯ লাখ টাকা সিটি কর্পোরেশন তহবিলে জমা না দিয়ে আত্মসাতের ঘটনা সিটি কর্পোরেশনের তদন্তে প্রমাণিত হয়। বর্তমানে ওই শিক্ষিকা অবসরোত্তর ছুটিতে রয়েছেন।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 527 People

সম্পর্কিত পোস্ট