চট্টগ্রাম শনিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

২২ নভেম্বর, ২০২০ | ৩:০৩ অপরাহ্ণ

দুই দলে প্রার্থীর ছড়াছড়ি

নৌকায় ওঠতে ১১ জনের দৌড়ঝাঁপ

পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে চন্দনাইশে সরগরম হয়ে ওঠেছে রাজনীতির মাঠ। মেয়র ও কাউন্সিলর পদে মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন সম্ভাব্য প্রার্থী। ব্যানার-পোস্টার সাঁটিয়ে এবং সামাজিক-রাজনৈতিক অনুষ্ঠানে হাজির হয়ে প্রার্থিতা ইঙ্গিত দিচ্ছেন। দলীয় মনোনয়ন পেতে ধর্ণা দিচ্ছেন দলের শীর্ষ নেতাদের দ্বারে দ্বারে। পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে করোনাভাইরাস সংক্রমণের শুরুতে সাধারণ মানুষের নিকট ত্রাণসামগ্রী ও নগদ অর্থ সহায়তা নিয়ে ছুটে যান সম্ভাব্য প্রার্থীরা। ত্রাণ সহায়তার ফাঁকে নিজেদের প্রার্থিতার কথাও জানিয়ে দেন। মানুষের মন জয়ে চেষ্টা করে চলেছেন।

এছাড়াও বিভিন্ন স্থানে পোস্টার, ব্যানার, ফেস্টুন টাঙিয়ে নিজেদের প্রার্থিতা কথা জানিয়ে দিচ্ছেন। আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও এলডিপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাদের সরগরমে নির্বাচনী আবহ শুরু হয়েছে।

পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে মেয়র পদে আ. লীগের ১১ জন নেতা দলীয় প্রতীক নৌকা পেতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন। অন্যতম বড় দল বিএনপিতে ধানের শীষ পেতে মাঠে রয়েছেন ৪ জন। এলডিপিতে ১ জন, ইসলামী ফ্রন্টে ২ জন ও স্বতন্ত্র একাধিক সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী মনোনয়নপ্রত্যাশী রয়েছেন। পোস্টার-ব্যানার ছাড়াও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকেও চলছে প্রচারণা। প্রার্থী ও সমর্থকেরা পছন্দনীয় নেতার পক্ষে দলীয় প্রতীক পাওয়ার লক্ষ্যে জয়গান গেয়ে চলেছে। তবে দলীয় প্রতীক না পেলে বিদ্রোহী প্রার্থিতার ইঙ্গিত দিয়েছেন অনেকেই।

নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে সরকারি দল আওয়ামী লীগের ১১ জন মনোনয়নপ্রত্যাশী মাঠে রয়েছেন। তারমধ্যে বর্তমান মেয়র মাহাবুবুল আলম খোকা, পৌর আ. লীগের আহ্বায়ক এম কায়ছার উদ্দিন চৌধুরী, বিজিএমই নেতা আবদুল মাবুদ চৌধুরী মাহবুব, উপজেলা আ. লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী, গাছবাড়িয়া সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি শেখ টিপু চৌধুরী, পূজা উদ্যাপন পরিষদের নেতা উৎপল রক্ষিত, মক্কা আওয়ামী ফাউন্ডেশনের সভাপতি এম মোজাম্মেল হক, আওয়ামী লীগ সদস্য আবুল কাশেম বাবলু, আখতারুজ্জামান ফাউন্ডেশনের সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম রহমানী, যুবলীগ নেতা ইয়াছিন আরাফাত চৌধুরী, মদিনা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম। দেশের অন্যতম বড় দল বিএনপি দলীয় প্রতীক ধানের শীষ পেতে কোমর বেঁধে মাঠে নেমেছেন ৪ জন। তারা হলেন, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আনোয়ার চৌধুরী, উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, দক্ষিণ জেলা ছাত্রদলের সাবেক আহ্বায়ক জসিম উদ্দিন, পৌরসভা বিএনপি নেতা মো. ইফতেখার হোসেন ইফতু। লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি) ছাতা প্রতীকের আশায় রয়েছেন পৌর এলডিপি’র সভাপতি আইনুল কবির। ইসলামী ফ্রন্টের মোমবাতি প্রতীকের জন্য লড়ছেন ইসলামী ফ্রন্টের ঢাকা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক মো. আবদুল হাকিম ও আলমগীরুল ইসলাম বঈদী। এছাড়াও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জেসিকা গ্রুপের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিনসহ একাধিক সম্ভাব্য প্রার্থী মাঠে রয়েছেন।

২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। শপথ নিয়েছে ২০১৬ সালের ২৫ জানুয়ারি। ২৫ ফেব্রুয়ারি পরিষদের প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেই হিসাবে আগামী বছরের ২৫ ফেব্রুয়ারি পৌরসভার মেয়াদ শেষ হচ্ছে। মেয়াদ শেষ হওয়ার ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠানের আইনি বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 78 People

সম্পর্কিত পোস্ট