চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

২০ নভেম্বর, ২০২০ | ৭:৪৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

ব্যবসায়ীকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসিয়ে দেয়ার চেষ্টা: চবি ছাত্রসহ গ্রেপ্তার ৪

চট্টগ্রামের বাকলিয়ায় এক ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টায় চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার (২০ নভেম্বর) ভোর সাড়ে চারটা পযর্ন্ত নগরীর বাকলিয়ার বিভিন্ন স্থানে পৃথক অভিযানে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানান বাকলিয়া থানার ওসি নেজাম উদ্দিন।

ওসি নেজাম উদ্দিন জানান, পরবর্তীতে বাকলিয়া থানায় আসামিদের বিরুদ্ধে একটি নিয়মিত মামলা করে ভিটটিম আল মামুন। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত দেড়টায় কল্পলোক আবাসিক এলাকা হইতে মো. মামুনকে (২৩), রাহাত্তারপুল এলাকা হইতে রাত পৌনে দুইটায় আব্দুল্লাহ ওয়াহিদ জিহানকে (২২) , কালামিয়া বাজার এলাকা হইতে রাত সাড়ে চারটায় মো. রমজানকে (৩৫), বাকলিয়া খালপাড় এলাকা হইতে মো. আরিফ (২১)কে গ্রেপ্তার করা হয়।

আটককৃতরা হল: কক্সবাজারের চকরিয়ার সাহারাবিল মৌলভী পাড়ার আবু নঈমের ছেলে মো. মামুন (২৩) , চট্টগ্রামের রাহাত্তারপুল এলাকার নেয়ামত আলী সুফীর বাড়ির জামাল উদ্দিনের ছেলে আব্দুল্লাহ ওয়াহিদ জিহান (২২), কক্সবাজারের দক্ষিণ মাইজ পাড়া, ঈদগাঁ এলাকার আব্দুস শুক্কুরের ছেলে মো.রমজান (৩৫), চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার মাঝির ঘাটার নুরুল আজিমের ছেলে মো. আরিফ (২১)।

ওসি নেজাম উদ্দিন জানান, গার্মেন্টস যন্ত্রপাতি বিক্রি করার কথা বলে রসুলবাগ আবসিক এলাকার একটি বাড়িতে ফোনে ডেকে নিয়ে ব্যবসায়ী আল মামুনকে অপহরণ করে তারা। ব্যবসায়ী কিছু বুঝে উঠার আগে ৭ অপহরণকারী মিলে তাকে এলোপাতাড়ি মারধর শুরু করে। তাদের এমন আচরনে তিনি হতভম্ব হয়ে পড়েন।  মারার কারণ জিজ্ঞাসা করলে তারা তার কাছ থেকে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। কিন্তু, তিনি চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে তাদের মধ্যে একজন তাকে কিল, ঘুষি মারতে থাকলে তিনি ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েন । তার পকেটে থাকা ১৫ হাজার টাকা এবং একটি মোবাইল ফোন  দিয়ে দেন। তাতেও তারা ক্ষান্ত না হয়ে আল মামুন এর নিকট অবশিষ্ট টাকা দাবি করতে থাকে। তখন তিনি নিরুপায় ও অনেকটা বাধ্য হয়ে তার ব্যবসায়ী বন্ধু নজরুলের নিকট হতে বিকাশে ১০ হাজার টাকা তাদের একজনের মোবাইল নাম্বারে এনে দেন। এরপর তাকে ছেড়ে দিতে বললে তারা আরও অবশিষ্ট টাকা দাবি করে। তিনি তাদের কথা মতো অবশিষ্টা টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে অজ্ঞাতনামা ০৭ জন ব্যক্তি তাকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ২ লক্ষ টাকা না দিলে তাকে প্রাণে হত্যা করবে বলে হুমকি দেয়। একই সাথে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা তার সামনে ইয়াবা ট্যাবলেট এবং ইয়াবা ট্যাবলেট সেবনের সরঞ্জাম রেখে ছবি তোলে এবং ইয়াবা ব্যবসায়ী সাজিয়ে পুলিশ ডেকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়ার হুমকি দেয়। পরবর্তীতে টাকা না দিয়ে সময়ক্ষেপন করায় অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে বেদম মারধর শুরু করে। এভাবে প্রায় দেড় ঘন্টা তাকে আটকে রেখে আসামীরা তার কাছ থেকে বিকাশ এবং নগদ মিলিয়ে ২৫ হাজার টাকা ও মোবাইল ফোন নিয়ে উক্ত ঘর হতে বেড়িয়ে যায়। অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা চলে যাওয়ার পর তিনি উক্ত রুম থেকে কৌশলে বের হয়ে চিৎকার করলে স্থানীয় পথচারী সহ উক্ত বিল্ডিং এর মালিক মো. শওকত হোসেন (৩৫) তাকে উদ্ধারের জন্য এগিয়ে আসেন। পরে আল মামুন পথচারীর মোবাইল নিয়ে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ কল দেন। কল দেয়ার পর বাকলিয়া থানার টহল পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায় এবং বাড়ির মালিক ও আশপাশের লোকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ঘটনাস্থলের কক্ষটি ভাড়া নেওয়া আসামি মামুন (২৩) ও জিহান (২৫) কে সনাক্ত করেন।

উল্লেখ্য যে, আসামিদেরকে জিজ্ঞাসাবাদে মো. মামুন (২৩) চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগ এবং আসামি আব্দুল্লাহ ওয়াহিদ জিহান (২২) চট্টগ্রাম ইন্ডিপেন্ডেট বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বলে জানা যায়।

পূর্বকোণ / আরআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 142 People

সম্পর্কিত পোস্ট