চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

১৯ নভেম্বর, ২০২০ | ১০:০৩ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

‘কাস্টম কর্মকর্ত‌া’ সেজে প্রতারণা: বন্দর কর্মচারীসহ গ্রেপ্তার ৬

চট্টগ্রাম বন্দরে নিলামের জন্য রাখা গাড়ি বিক্রির কথা বলে টাকা হাতিয়ে নিয়ে প্রতারণার অভিযোগে ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি। আজ বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) সিআইডির পক্ষ থেকে তাদের গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হল: মহিদুল ইসলাম সরকার প্রকাশ নজরুল, মো.মোবারক হোসেন প্রকাশ সুমন, মো. আনোয়ার হোসেন, নুরুল আবছার, রুহুল আমিন ও মো. ইউসুফ।

এদের মধ্যে নুরুল আবছার চট্টগ্রাম বন্দরের সিকিউরিটি গার্ড, রুহুল আমিন ও মো. ইউসুফ ‘নো ওয়ার্ক নো পে’ ভিত্তিতে অস্থায়ী পিয়ন হিসেবে কর্মরত বলে জানিয়েছে সিআইডি। মো. মহিদুল ইসলাম সরকার প্রকাশ নজরুল, মো. মোবারক হোসেন প্রকাশ সুমন ও মো. আনোয়ার হোসেন প্রতারক চক্রের সদস্য।

সিআইডি চট্টগ্রাম অঞ্চলের বিশেষ পুলিশ সুপার মুহাম্মদ শাহনেওয়াজ খালেদ জানান,  বন্দরে নিলামের জন্য রাখা গাড়ি বিক্রির কথা বলে টাকা হাতিয়ে নিয়ে প্রতারণার অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় টানা দুইদিন ঢাকা ও চট্টগ্রামে অভিযান চালিয়ে মোট ছয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গাড়িচালক শাহিনুর রহমান হালিম চট্টগ্রাম বন্দর থেকে নিলামে গাড়ি কেনার জন্য তার বন্ধু রুবেলের সঙ্গে আলোচনা করেন। তখন রুবেল শাহিনুর রহমান হালিমকে আনোয়ার হোসেনের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন। আনোয়ার হোসেন শাহিনুর রহমান হালিমকে মোবারক হোসেন প্রকাশ সুমনের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন। মোবারক হোসেন প্রকাশ সুমন তখন শাহিনুর রহমান হালিমকে জানান- ‘কাস্টম অফিসার’ মহিদুল ইসলাম সরকার প্রকাশ নজরুল তার মামা হন।পরে  আমিনুল ইসলামকে নিয়ে বন্দরে প্রবেশ করে এবং একটি ‘এক্স নোহা ২০০৫ মডেল’ এর গাড়ি দেখায়। সেখান থেকে বের হয়ে সানোয়ার হোসেন প্রকাশ সাখাওয়াতের প্রাইভেট কারে বসে ১০ লাখ ১৯ হাজার টাকা হালিমের কাছে থেকে গ্রহণ করেন তারা। এ সময় সানোয়ার হোসেন প্রকাশ সাখাওয়াত বাদি হালিমকে জানান- গাড়ির কাগজপত্র ঠিক করা হচ্ছে এবং ৪ নম্বর গেইট থেকে গাড়ি বুঝে নিতে পারবে। তারপর গাড়ি না পেয়ে  এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর বন্দর থানায় করা মামলায় তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পূর্বকোণ/ আরআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 72 People

সম্পর্কিত পোস্ট