চট্টগ্রাম বুধবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

২৮ এপ্রিল, ২০১৯ | ৩:১৩ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা

চবিতে পাহাড়ে ঘুরতে গিয়ে খোয়ালেন সর্বস্ব

ছিনতাইকারীর কবলে ৪০ শিক্ষার্থী

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ‘চালন্দা গিরিপথে’ ঘুরতে গিয়ে ছিনতাইকারীর কবলে পড়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪০ শিক্ষার্থী। এসময় আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে আনোয়ার হোসেন নামে এক শিক্ষার্থীর আঘাত গুরুতর হওয়ায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। গতকাল শনিবার (২৭ এপ্রিল) দুপুর ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে সন্দেহজনক দুই জনকে আটক করেছে। গুরুতর আহত আনোয়ার হোসেন নৃবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। এছাড়া একই বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের আল-আমিন, ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের মনির এবং ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের সৌরভ ও স্বচ্ছ আহত হয়েছেন। এসময় তাদের কাছ থেকে অন্তত ২৫টি মোবাইল, হাতঘড়ি, নগদ প্রায় বিশ হাজার টাকা ছিনতাই হয়েছে বলে জানা যায়।
জানা যায়, শনিবার দুপুরে ‘চালন্দা গিরিপথে’ ঘুরতে যান বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান, যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা এবং ক্রিমিনোলজি অ্যান্ড পুলিশ সায়েন্স বিভাগের প্রায় ৪০ জনের একটি দল। ফেরার পথে পাহাড়ে ওঁৎ পেতে থাকা কয়েকজন ছিনতাইকারী হামলা চালায়। এসময় আনোয়ারের মাথায় এবং কাঁধে কোপ লাগে। এক পর্যায়ে মোবাইল মানিব্যাগসহ সবকিছু কেড়ে নেয় তারা। পরে সঙ্গে থাকা বন্ধুরা আহতদের কাঁধে করে ক্যাম্পাসে নিয়ে আসে। ছিনতাইয়ের খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালায়। এসময় সরওয়ার হোসেন এবং আবুল হোসেন নামে সন্দেহজনক দুইজনকে আটক করা হয়েছে।
চবি মেডিকেল সেন্টারে চিকিৎসা নিতে আসা ছিনতাইয়ের শিকার বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী বলেন, ‘চালন্দা থেকে ফেরার পথে ছিনতাইকারীদের আক্রমণের শিকার হয়েছি। তাদের হাতে আগ্নেয়াস্ত্র এবং রামদা ছিল। আমাদের মোবাইলসহ সব কিছু নিয়ে যাওয়ায় কারো সাথে যোগাযোগ করতে পারছিলাম না।’
এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয় পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আখতারুজ্জামান বলেন, ছিনতাইয়ের খবর পেয়ে তৎক্ষণাত আমরা অভিযান চালাই। এসময় দুইজনকে আটক করেছি। তাদের হাটহাজারী থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।
প্রসঙ্গত, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি একই এলাকায় ছিনতাইয়ের কবলে পড়েন রসায়ন বিভাগের ৩০ শিক্ষার্থী। ২০১১ সালে বিশ্ববিদ্যালয়েল কয়েকজন শিক্ষার্থী ‘আবিষ্কার’ করেন এই ‘চালন্দা গিরিপথ’। এরপর থেকে চবির অ্যাডভেঞ্চার প্রিয়দের খাতায় যুক্ত হয় এই স্থানটি। প্রতিদিনই অনেকে দলবেঁধে এই নৈসর্গিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে যায়। বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ঝুপড়ির পশ্চিমে পাহাড়ি ছড়া দিয়ে ঘণ্টাখানেক সময় লাগে এই গিরিপথে পৌঁছাতে। তবে এই সৌন্দর্য অবলোকন করতে গিয়ে প্রায় ছিনতাইয়ের কবলে পড়ছে শিক্ষার্থীরা।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 349 People

সম্পর্কিত পোস্ট