চট্টগ্রাম সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০

১৪ নভেম্বর, ২০২০ | ১১:৪৪ পূর্বাহ্ণ

কক্সবাজার সংবাদদাতা

টেকনাফে গোলাগুলিতে ‘ইয়াবা কারবারি’ নিহত

টেকনাফের নাফ নদীতে বিজিবির সাথে গোলাগুলিতে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। এসময় আহত হয়েছে বিজিবির দুই সদস্য। ঘটনাস্থল থেকে ২ লাখ ১০ হাজার পিস ইয়াবা, একটি দেশীয় তৈরি অস্ত্র ও দুই রাউন্ড কার্তুজের খালি খোসা উদ্ধার করা হয়েছে।
আজ শনিবার (১৪ নভেম্বর) ভোররাতে এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। বিজিবি’র দাবি, নিহত ব্যক্তি ইয়াবা কারবারি। তবে তার পরিচয় শনাক্ত করা যায়নি।

টেকনাফের ২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল ফয়সল হাসান খান জানান, বিজিবির কাছে খবর ছিল মধ্যরাতে নাফ নদীর ১ নম্বর স্লুইচ গেইট এলাকায় মিয়ানমার থেকে ইয়াবার একটি বড় চালান আসতে পারে। এর পরিপ্রেক্ষিতে বিজিবির একটি বিশেষ টহল দল সেখানে স্পীডবোট নিয়ে টহলরত অবস্থায় ৩ জন সন্দেহজনক ব্যক্তিকে হস্তচালিত কাঠের নৌকা নিয়ে বাংলাদেশের জলসীমার দিকে আসতে দেখে। বিজিবির টহলদল তাদের চ্যালেঞ্জ করা মাত্রই তারা বিজিবি সদস্যদের লক্ষ করে গুলি করতে থাকে। এতে বিজিবির দুই সদস্য আহত হয়।

এসময় বিজিবি সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালালে দুই জন ইয়াবা কারবারী নদীতে ঝাঁপ দিয়ে সাঁতরে শূণ্য রেখা অতিক্রম করে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে চলে যায়। পরে বিজিবি সদস্যরা কাঠের নৌকা থেকে অজ্ঞাতনামা এক ইয়াবা কারবারিকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে। পরে তাকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নৌকা তল্লাশী করে ২ লাখ ১০ হাজার ইয়াবা এবং গুলিবিদ্ধ ব্যক্তির কাছে একটি দেশীয় তৈরি অস্ত্র, দুই রাউন্ড কার্তুজের খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধার করা ইয়াবার মূল্য প্রায় ৬ কোটি ৩০ লাখ টাকা।

বিজিবি কর্মকর্তা লে. কর্নেল ফয়সল হাসান খান আরও জানান, এ ঘটনায় আহত বিজিবি সদস্যদের টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। সরকারি কাজে বাঁধা প্রদান এবং অবৈধ মাদক পাচারের দায়ে দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনী পদক্ষেপ গ্রহনের প্রক্রিয়া চলছে।

পূর্বকোণ/আরফাতুল-এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 69 People

সম্পর্কিত পোস্ট