চট্টগ্রাম সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

বোয়ালখালীতে অভ্যন্তরীণ সড়কে উন্নয়নকাজের ধকল

১২ নভেম্বর, ২০২০ | ৫:২১ অপরাহ্ণ

সেকান্দর আলম বাবর

ওয়াসার ভাণ্ডালজুরি প্রকল্প ও কানুনগোপাড়া সড়ক সংস্কার

উন্নয়নকাজের ধকলে নাকাল বোয়ালখালীর অভ্যন্তরীণ সড়ক

অভ্যন্তরীণ গুরুত্বপূর্ণ সব সড়কের বেহাল দশা বোয়ালখালীতে। ওয়াসা ভাণ্ডালজুরি প্রকল্পের কাজে সড়কে ভারী যানবাহন চলাচল বেড়ে যাওয়া ও বছরের পর বছর উন্নয়নের নামে মূল সড়ক হাওলা-কানুনগোপাড়া সড়কে কাজের নামে সংস্কারহীন থাকাকে এ বেহাল দশার জন্য দায়ী করছেন সংশ্লিষ্টরা।

জানা যায়, ২০১৯ সালের ২০ এপ্রিল কানুনগোপাড়া হাওলা ডিসি সড়কের সংস্কারকাজের উদ্বোধন করা হয়। কাজের উদ্বোধন করেছিলেন প্রয়াত সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মঈন উদ্দিন খান বাদল। ইতিমধ্যে পেরিয়ে গেছে ১ বছর ৭ মাস। চলমান রয়েছে সংস্কারকাজ। প্রধান সড়ক বন্ধ থাকায় গ্রামীণ সড়ক দিয়ে চলাচল করছে ভারী যানবাহন। এতে সড়কগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে চলাচল অনুপযোগী হয়ে উঠেছে। এদিকে কাজে রয়েছে চরম অনিয়ম।

দেখা গেছে, হাওলা ডিসি সড়কের কানুনগোপাড়া থেকে বোয়ালখালী সিরাজুল ইসলাম ডিগ্রি কলেজ পর্যন্ত পাথর আর বালুর মিশ্রণ দিয়ে ভরাট করে উঁচু ও প্রশস্ত করা হয়। চলমান রয়েছে উপজেলা সদর থেকে গোমদণ্ডী ফুলতল পর্যন্ত অংশের কাজ। এছাড়া অলি বেকারি থেকে খালে রিটেইনিং ওয়ালের নির্মাণকাজও বেশিদূর এগোয়নি।

সড়ক ও জনপথ বিভাগ সূত্রে জানা যায়, মইজ্জ্যারটেক-কানুনগোপাড়া-উদরবন্যা সড়ক নির্মাণকাজে প্রাকল্পিত ব্যয় ধরা হয়েছে ৭৮ কোটি টাকা। এর মধ্যে কানুনগোপাড়া হাওলা ডিসি সড়কের গোমদণ্ডী ফুলতল হতে সড়ক সংস্কার, পুনর্নির্মাণ, সড়ক প্রস্থে ১২ ফুট থেকে ১৮ ফুট প্রশস্তকরণ ও খালের ভাঙনরোধে ১ কিলোমিটার রিটেইনিং ওয়াল নির্মাণ করা হবে। টেন্ডারের মাধ্যমে কাজ পেয়েছে ৩ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।

উপজেলা প্রকৌশলী ম. বিল্লাল হোসেন বলেন, সওজের সংস্কার কাজের জন্য প্রধান সড়ক বন্ধ হয়ে যাওয়ায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের আওতাধীন অভ্যন্তরীণ সড়কে ভারী যানবাহন চলাচল ও ওয়াসার পাইপ বসানোর কারণে ক্ষত-বিক্ষত ও খানাখন্দকের সৃষ্টি হয়েছে। এতে আপাতদৃষ্টিতে ১৫ কোটি টাকার অধিক ক্ষতি হয়েছে। উপজেলার প্রধান সড়ক সংস্কার ও ওয়াসার কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর চূড়ান্তভাবে ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণ করে সংস্কারের জন্য তালিকা তৈরির নির্দেশনা রয়েছে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের।

সড়ক ও জনপথ বিভাগ (দোহাজারী) নির্বাহী প্রকৌশলী সুমন সিংহ জানান, মইজ্জ্যারটেক-কানুনগোপাড়া-উদরবন্যা সড়ক নির্মাণকাজের প্রায় ৬০ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে। এর মধ্যে মইজ্জ্যারটেক থেকে পাঁচুরিয়া পর্যন্ত কার্পেটিংয়ের কাজ শেষ হয়েছে। বোয়ালখালীর শ্রীপুর বুড়া মসজিদ থেকে কার্পেটিংয়ের কাজ শুরু হয়েছে।

বৃষ্টির কারণে খালের রিটেইনিং ওয়ালের কাজ কিছুটা ব্যাহত হয়েছে, তা দ্রুত সময়ে শুরু করা হবে। সংস্কার কাজ আগামী বছরের ৩০ জুনের মধ্যে শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। আশা করি, নির্দিষ্ট সময়ে সড়কের কাজ শেষ হবে।

 

 

 

পূর্বকোণ/পি-আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 108 People

সম্পর্কিত পোস্ট