চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০

চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলায় প্রতিমা বিসর্জন

২৬ অক্টোবর, ২০২০ | ৯:৫৭ অপরাহ্ণ

রাউজান-কক্সবাজার সংবাদদাতা

চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলায় প্রতিমা বিসর্জন

রাউজান

বিপুল উৎসব-উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে চট্টগ্রামেও সম্পন্ন হয়েছে হিন্দু ধর্মালম্বীদের দুর্গাপূজার প্রতিমা বিসর্জন। রাউজানে জেলা পর্যায়ে সর্বোচ্চ ২৩২টি মণ্ডপের প্রতিমা বিসর্জন দেয়া হয়েছে। এ উপলক্ষে আজ সোমবার (২৬ অক্টোবর) বিকেলে উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে ও ঢেউয়াপাড়া উদযাচল সংসদের আয়োজনে অপরাজিতা সেবাশ্রম মাঠে দুর্গাপূজার বিজয়া সম্মিলনী অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরীর সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন পৌরসভার প্যানেল মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ।

সাংবাদিক প্রদীপ শীলের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ইউপি চেয়ারম্যান বিএম জসিম উদ্দিন হিরু, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুমন দে, আবদুল লতিফ, অশোক পালিত, টিপু দে, ধীলন মুহুরী, তপন দে, দিপলু দে দীপু, জিল্লুর রহমান মাসুদ, অনুপ চক্রবর্তী, উজ্জ্বল চক্রবর্তী, সাইদুল ইসলাম, আবু ছালেক, ফরহাদ ইসলাম, নাছির উদ্দিন, বেলাল হোসেন সিফাত প্রমুখ।

কক্সবাজার

এদিকে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে কক্সবাজারেও উৎসবমুখর পরিবেশে সম্পন্ন হয়েছে বাঙালি সনাতনী সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় অনুষ্ঠান শারদীয় দুর্গোৎসব। সোমবার বিকালে বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতে সম্প্রীতির বন্ধনে প্রতিমা বিসর্জন সম্পন্ন হয়েছে। প্রতিমা বিসর্জনকে কেন্দ্র করে সৈকতের বালিয়াড়িতে সব ধর্মের মানুষের উপস্থিতিতে তৈরি হয় সম্প্রীতির সেতুবন্ধন। আর এ বন্ধনে সকলেই এক সুরে প্রত্যয় ঘোষণা করেছেন অসাম্পদায়িক বাংলাদেশ গড়ার।

করোনা ভাইরাসের কারণে দুর্গা পূজা উদযাপনে নানা বিধিনিষেধ ছিল। এবার প্রতিমা বিসর্জনে বাদ দেয়া হয়েছে শোভাযাত্রা। রাখা হয়নি কোন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভা। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে সুষ্ঠুভাবে প্রতিমা বিসর্জনের আয়োজন করে কক্সবাজার জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ। তবুও প্রতিমা বিসর্জন অবলোকনে সৈকতের বালিয়াড়িতে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের পাশাপাশি দুপুর থেকে আসতে থাকে নানা ধর্মের মানুষ। তাদের সাথে যোগ দেয় পর্যটকেরাও।

বিসর্জন ঘিরে পুলিশ, গোয়েন্দা সংস্থার সদস্য, ট্যুরিস্ট পুলিশের সদস্য ও জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের স্বেচ্ছাসেবকরা দায়িত্ব পালন করেন। আয়োজকেরা জানান, সৈকতের এ অনুষ্ঠানে বিভিন্ন উপজেলা থেকে আসা ৩০০টির অধিক প্রতিমা বিসর্জন দেয়া হয়েছে।

প্রতিমা বিসর্জন চলাকালীন সৈকতের বিজয়া মঞ্চে জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি এডভোকেট রণজিত দাশের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি বাবুল শর্মার সঞ্চালনায় সংক্ষিপ্ত শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি, জেলা প্রশাসক কামাল হোসেন, পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান, টুরিস্ট পুলিশের পুলিশ সুপার জিল্লুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শাজাহান আলী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান, সদর থানার ওসি শেখ মুনীর উল গীয়াস, মহেশখালী পৌরসভার মেয়র মকছুদ মিয়া, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েল, কক্সবাজার পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি নজিবুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল কর।

 

 

 

 

পূর্বকোণ/জাহেদ-আরাফাত-আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 100 People

সম্পর্কিত পোস্ট