চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

বোয়ালখালীতে দেদারছে অবৈধ গ্যাস ব্যবসা

২১ অক্টোবর, ২০২০ | ৭:২৯ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

১২ কেজির পরিবর্তে গ্যাস রয়েছে ১০ কেজি

বোয়ালখালীতে দেদারছে অবৈধ গ্যাস ব্যবসা

কোন লাইসেন্স নেই বিস্ফোরক অধিদপ্তরের

বোয়ালখালীর শাকপুরা চৌমুহনীর মায়ের দোয়া এবং পশ্চিম গোমদণ্ডী রায়খালী ব্রিজ এলাকার মান্নান স্টোরের নেই বিস্ফোরক অধিদপ্তরের কোনো লাইসেন্স। তারপরও তারা অবৈধভাবে দেদারছে বিক্রি ও সরবরাহ করছে গ্যাস সিলিন্ডারসহ তেল।

গত রবিবার (১৮ অক্টোবর) রাতে অবৈধ গ্যাস সিলিন্ডার নিয়ে বোয়ালখালীতে প্রবেশের সময় শাকপুরা বড়ুয়ার টেক এলাকায় উপজেলার বৈধ বিস্ফোরক অধিদপ্তরের লাইসেন্সধারীরা স্থানীয় ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম ও নেজাম উদ্দিনের নেতৃত্বে তা আটকে দেয়। এরপর পুলিশে খবর দিলে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে মিনি ট্রাকসহ টোটাল ও ওমেরার স্টিকার লাগানো ৫৬টি গ্যাস সিলিন্ডার উদ্ধার করে।

এ সময় টোটাল গ্যাসের এসআর আরিফুর রহমান নিশ্চিত করেন, এ সিলিন্ডারগুলোতে নকল মোড়ক লাগানো হয়েছে। তিনি এও নিশ্চিত করেন সিলিন্ডারগুলোতে ১২ কেজির পরিবর্তে গ্যাস রয়েছে ৯.৫ থেকে ১০ কেজি। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে শাকপুরা ২ নং ওয়ার্ডের সিপাহীর ঘোনার হামিদুল হকের পুত্র মো. সাজ্জাদুল হক (২৫) ও ড্রাইভার পশ্চিম গোমদণ্ডী মিয়া বাপের বাড়ির আবদুর রশিদের পুত্র মো. মুরাদকে (২৩) আটক করে।

পুলিশ জানায়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা উপজেলায় দীর্ঘদিন ধরে নকল গ্যাস সরবরাহ করে আসছিল বলে স্বীকার করে। তারা এ গ্যাস সিলিন্ডার পটিয়ার আমজুরহাট এলাকার বিসমিল্লাহ ট্রেডিং থেকে সংগ্রহ করে বলেও জানান। এ ব্যাপারে মো. নেজাম উদ্দিন বাদি হয়ে বোয়ালখালী থানায় মো. আরিফ, সাজ্জাদুল হক, রুম্মান ও রিয়াদ নামে চারজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

বোয়ালখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবদুল করিম মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, অপরাধী ও অন্যান্যদের বিষয়ে তদন্ত চলছে। বাকি আসামিদের দ্রুত গ্রেপ্তার করা হবে।

 

 

পূর্বকোণ/পি-আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 87 People

সম্পর্কিত পোস্ট