চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২০

সর্বশেষ:

ফটিকছড়িতে হেফাজত নেতাদের আটক, প্রতিবাদে হাটহাজারী মাদ্রাসায় বিক্ষোভ

১৩ অক্টোবর, ২০২০ | ১২:৪৮ পূর্বাহ্ণ

হাটহাজারী সংবাদদাতা

ফটিকছড়িতে হেফাজত নেতাদের আটক, প্রতিবাদে হাটহাজারী মাদ্রাসায় বিক্ষোভ

চট্টগ্রামের নাজিরহাটে হেফাজত ইসলামের নেতাদের আটকের প্রতিবাদে আল-জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম মইনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদ্রাসায় বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে শিক্ষার্থীরা। সোমবার (১২ অক্টোবর) রাত পৌনে ১০টার দিকে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ সমাবেশ করে। রাত ১২টায় এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত হাটহাজারী মাদ্রাসার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

জানা যায়, সোমবার ফটিকছড়ির হেফাজত ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক গোলাম রাব্বানী ইসলামাবাদী সাহেবের সাথে সাক্ষাৎ করার জন্য হেফাজতের সাবেক শিক্ষা ও প্রশিক্ষক বিষয়ক সম্পাদক মুফতি হারুন ইজহার, হেফাজত ইসলাম চট্টগ্রাম উত্তর জেলার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও হাটহাজারী পৌরসভার সভাপতি মাওলানা মীর ইদ্রিস, হাটহাজারী পৌরসভার সহ-প্রচার সম্পাদক মাওলানা কামরুল কাসেমীসহ নয়জনের একটি দল সন্ধ্যার পর তার বাসায় যান । এ খবর নাজিরহাট বড় মাদরাসার বর্তমান মুহতামিম মাওলানা সেলিমুল্লাহ জানতে পেরে স্থানীয় প্রশাসনকে তথ্য দিয়ে তাদের পুলিশ হেফাজতে নিয়ে যান। হেফাজত নেতাদের আটকের খবর পেয়ে হাটহাজারী মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ সমাবেশ করে।

হেফাজত ইসলামের সাবেক শিক্ষা ও প্রশিক্ষক বিষয়ক সম্পাদক মুফতি হারুন ইজহার থানা থেকে ছাড়া পেয়ে হাটহাজারী মাদ্রাসায় আসলে পরিস্থিতি শান্ত হয়। পরে তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, কুচক্রী মহলের ভুল তথ্যের ভিত্তিতে জঙ্গী সন্দেহে আমাদের নাজিরহাট মাদ্রাসার পাশে মাওলানা গোলাম রাব্বানী ইসলামাবাদীর বাড়িতে থেকে ফটিকছড়ি থানা পুলিশ আটক করে নিয়ে যায়। পরে যাচাই-বাছাই করে আমাদের ছেড়ে দেয়।

হাটহাজারী মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাসুদ আলম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ফটিকছড়ি থানা পুলিশ হেফাজত নেতাদের আটক করেছে- এমন সংবাদ পেয়ে হাটহাজারী মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ সমাবেশ করে। পরে জানা যায়, যাচাই-বাছাই করে আটককৃত হেফাজত নেতৃবৃন্দকে ছেড়ে দেয়ার খবর শুনে মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা সমাবেশ সমাপ্ত করে রুমে ফিরে যায়। কোন ধরনের বিশৃঙ্খলা হয়নি। বর্তমানে মাদ্রাসার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

 

 

 

পূর্বকোণ/শিমুল-আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 167 People

সম্পর্কিত পোস্ট