চট্টগ্রাম শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০

সর্বশেষ:

১১ অক্টোবর, ২০২০ | ২:০৯ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

পুলিশের বিরুদ্ধে ‘মিথ্যা অভিযোগ’ করতে গিয়ে যুবক গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামের পুলিশের বিরুদ্ধে টাকা ছিনতাইয়ের ‘মিথ্যা অভিযোগ’ দিয়ে ফেঁসে গেলেন চট্টগ্রামের এক মাছ ব্যবসায়ী।

অভিযুক্ত বাবলা দাশ (৩০) চট্টগ্রাম নগরীর খুলশী থানাধীন লালখান বাজার টাংকি পাহাড় লেনের রামসুন্দরের বাড়ির ধনঞ্জয় দাশের ছেলে।

টানা ১২ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শনিবার বাবলা দাশ (৩০) নামের ওই যুবককে পুলিশ গ্রেপ্তার দেখিয়েছে বলে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) পলাশ কান্তি নাথ জানিয়েছেন।

রবিবার (১১ অক্টোবর) কোতোয়ালী জোনের সহকারী কমিশনার নোবেল চাকমা জানান, আইপিএল এর জুয়া খেলে ব্যবসায় লোকসান হয় বাবলার। পাওনাদারের হাত থেকে রক্ষা পেতে সে এ ধরনের নাটক সাজানোর কথা জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে।

এর আগে অভিযোগে বাবলা জানায়, গত ৯ অক্টোবর (শুক্রবার) রাত ১১টার দিকে ডিসি হিল এলাকায় পাঁচ পুলিশ সদস্য তাকে গাড়িতে তুলে ১ লাখ ১৩ হাজার টাকা ও মোবাইল হাতিয়ে নিয়েছে। এছাড়া তার এক হাতে কিছু ইয়াবা ও অন্য হাতে টাকা দিয়ে ছবি তুলে দুই ঘন্টার মত বিভিন্ন রাস্তায় ঘুরিয়ে নিউমার্কেটের পাশে মিউনিসিপাল মডেল হাই স্কুলের সামনে নামিয়ে দেয়।

শনিবার অভিযোগটি পেয়ে নগর পুলিশের দক্ষিণ জোনের অতিরিক্ত উপকমিশনার পলাশ কান্তি নাথ ও কোতোয়ালী জোনের সহকারী কমিশনার নোবেল চাকমার নেতৃত্বে কোতোয়ালী থানা পুলিশ একাধিক দল তদন্তে নামে।

এরপর ডিসি হিল ও পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন রাস্তার সিসিটিভি ক্যামেরা ফুটেজ যাছাই, পুলিশ সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ এবং তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে অভিযোগের সত্যতা পাচ্ছিল না পুলিশ। তদন্তের একপর্যায়ে শনিবার রাতে পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করার বিষয়টি স্বীকার করেন বাবলা দাশ।

পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, গত ১ আগস্ট থেকে বিভিন্ন সময়ে আইনুদ্দীন নামের এক ব্যক্তির কাছ থেকে নগদে ও বাকিতে মাছ কিনেছিলেন বাবলা। সে টাকার জন্য চাপ দিচ্ছিলেন আইনুদ্দীন। তখন বাবলা তাকে ওই ‘ছিনতাইয়ের গল্প’ বলেন। আইনুদ্দীন তখন বিষয়টি সমিতির নেতাদের বললে তারা থানায় খবর দেন।

ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে সোনালী যান্ত্রিক মৎস্য শিল্প সমবায় সমিতির সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাবুল সরকার জানান, ‘আমরা খবর পাওয়ার পর ফোন করে কোতোয়ালি থানায় অভিযোগটি জানিয়েছিলাম। পরে তো পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে দেখা গেল ছেলেটা প্রতারক।’

মাছ ব্যবসায়ী আইনুদ্দীন তার প্রতিষ্ঠানের এক লাখ ৭০ হাজার আত্মসাতের অভিযোগে কোতোয়ালি থানায় বাবলার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন বলে জানান সহকারী কমিশনার নোবেল।

 

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 117 People

সম্পর্কিত পোস্ট