চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২০

সর্বশেষ:

৬ অক্টোবর, ২০২০ | ৬:২৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

৯৯৯-এ ফোন করে রক্ষা পেল দুই তরুণী

নগরীর বাকলিয়া থানার কল্পলোক আবাসিকে একটি বাসা থেকে দুই তরুণীকে উদ্ধার করেছে বাকলিয়া থানা পুলিশ।

 সোমবার (৫ অক্টোবর) কল্পলোক আবাসিক এলাকার এমিরেটার্স প্যালেস ব্লক-জি, প্লট-৩১, ৫ম তলার ৪ বি-ফ্ল্যাটটি শনাক্ত করা হয় এবং ঐ বাসা থেকে দুই তরুণীকে উদ্ধার করা হয়।

বাকলিয়া থানার ওসি নেজাম উদ্দীন জানান, ৯৯৯-এ কল করে ওই তরুণীর সাহায্যের কথা জানান। তারপর আমি তাদের মোবাইলে কল করে জানতে চাই তাদের কোথায় বন্দি করে রাখা হয়েছে। তারা কোন ঠিকানা বলতে পারছেন না। শুধু কল্পলোক আবাসিকের কথা বলল। তারপর তাদের বাইরের দৃশ্যের বর্ণানা দিতে বললাম। সেই সূত্র ধরে তাদের উদ্ধার করি।

এ ঘটনায় জড়িত মো. দেলোয়ার (২৫) এবং শাহীন আকতার (২৪) আটক করা হয়।

ওসি নেজাম উদ্দীন জানান, ওই দুই তরুণী পতেঙ্গা থানার ইপিজেড কেনপার্ক বাংলাদেশ এ্যাপারেল নামে একটি কারখানায় চাকরি করত। করোনার কারণে কারখানা বন্ধ হয়ে যাওয়াতে ওই প্রতিষ্ঠানের রেখা নামের একজন সহকর্মী অন্য গার্মেন্টসে চাকরি দেওয়ার নাম করে আসামি মো. রাকিবের সাথে যোগাযোগ করিয়ে দেয়। গত ৩ অক্টোবর রাত পৌন ১২টায় রাকিব ও তার বন্ধু শওকত আলী খাঁন ও শাহিনা আক্তার তাদের এই বাসায় নিয়ে আসে। তারা বাসায় এসে দেলোয়ার ও শাহীন আক্তারকে দেখতে পায়। পরে তারা ওই দুই তরুণীকে জোরপূর্বকে দেহ ব্যবসা করতে বাধ্য করে।

শওকত এবং রাকিব সাম্প্রতিককালে বাসাটি ভাড়া নিয়ে অসহায় তরুনীদের টার্গেট করে কৌশলে নিয়ে এসে জোরপূর্বক দেহ ব্যবসার কাজে লিপ্ত ছিল।

এ ঘটনায়  মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে চারজনকে আসামি করে একটি মামলা রুজু করা হয়েছে। পলাতক দুই আসামিকে ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান তিনি।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 69 People

সম্পর্কিত পোস্ট