চট্টগ্রাম বুধবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২০

চকরিয়ায় ভাইবোনের গলা-হাতের কব্জি কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ৯:৩৯ অপরাহ্ণ

চকরিয়া-পেকুয়া প্রতিনিধি

চকরিয়ায় ভাইবোনের গলা-হাতের কব্জি কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

কক্সবাজারের চকরিয়ায় সড়কের পার্শ্ববর্তী পাহাড়ি এলাকায় ধরে নিয়ে দুই শিশুকে গলা ও হাতের কব্জি কেটে হত্যা চেষ্টা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। আহত শিশুদের নাম মো. রিয়াজউদ্দিন (৭) ও রাজু আক্তার (১১)। আজ সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টার দিকে উপজেলার খুটখালী ইউনিয়নের মেধাকচ্ছপিয়া ঘাটি রাস্তার মাথা পাহাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত শিশুরা সর্ম্পকে ভাই-বোন।

গুরুতর আহত দুই ভাই-বোনকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে মালুমঘাট মেমোরায়িাল খ্রিস্টান হাসপাতালে ভর্তি করান। বর্তমানে তারা মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। দুর্বৃত্তরা রিয়াজ উদ্দিনকে গলা কেটে ও রাজু আক্তােেরর দুই হতের কব্জি কেটে দেয়।

রিয়াজ উদ্দিন ও রাজু আক্তার খুটাখালী ইউনিয়নের গর্জনতলী এলাকার দিনমজুর আবদুচ্ছবির ছেলে-মেয়ে। রিয়াজ স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দ্বিতীয় ও রাজু আক্তার তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী।

ইসমত আরা নামের এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, সকালে আমি রাস্তা দিয়ে বাজারে করতে যাওয়ার সময় পাহাড়ের ভেতর থেকে গলায় রক্তাক্ত অবস্থায় এক শিশু বের হয়ে আসে। এ সময় তাকে জিজ্ঞাসা করলে পাহাড়ের ভিতরে তার বড়বোনকে কুপিয়ে আহতের কথা জানায়। রক্ত দেখে আমি চিৎকার দিলে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে গুরুতর আহত ভাই-বোনকে উদ্ধার করে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যায়।

আহত শিশুর পিতা আবদুচ্ছবি বলেন, সকাল ৮টার দিকে বাড়িতে ছেলে-মেয়েকে রেখে আমি ও আমার স্ত্রী মিনু আরা বেগম মিলে ঈদগাঁও বাজারে এনজিও’র কিস্তির টাকা দিতে যাই। সাড়ে ৯টার দিকে এসে বাড়িতে তাদের না পেয়ে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করি। একপর্যায়ে বাড়ির অদূরে পাহাড় থেকে আমার ছেলে-মেয়েকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয়রা। দুর্বৃত্তরা আমার ছেলের গলা কেটে হত্যার চেষ্টা চালায় ও মেয়ের দুই হাতের কব্জি কেটে দিয়েছে।

আবদুচ্ছবি আরো বলেন, সম্প্রতি আমি ওই এলাকার আবদুর রহিম নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে এক লাখ ২০ হাজার টাকা দিয়ে ২০ কড়া ভিটি জমি ক্রয় করি। নগদ এক লাখ টাকা পরিশোধ করে ওই জমিতে আমি বসতবাড়ি নির্মাণ করে বসবাস করে আসছি। জমি পরিমাপ করে দেয়ার পর বাকি ২০ হাজার টাকা পরিশোধের কথা ছিল। গত দু’দিন আগে আবদুর রহিম জমি পরিমাপ করে না দিয়ে টাকা চায়। টাকা না দিলে বড় ধরনের ক্ষতি করার হুমকিও দেন তিনি। বাড়িতে আমাদের অনুপস্থিতির সুযোগে আমার ছেলে-মেয়েকে ধরে পাহাড়ে নিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়েছে।

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যোবায়ের বলেন, শিশু কুপিয়ে আহতের ঘটনায় মামলার প্রস্ততি চলছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।

 

 

পূর্বকোণ/জাহেদ-আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 117 People

সম্পর্কিত পোস্ট