চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২০

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ১২:৫৭ অপরাহ্ণ

সীতাকুণ্ড সংবাদদাতা

সীতাকুণ্ড করোনায় শিক্ষকের মৃত্যু

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করলেন কালের কন্ঠ শুভসংঘের উপজেলা সভাপতি অধ্যাপক রঞ্জিত সাহা (৫০)। তিনি কুমিরা আবাসিক গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যাপক ছিলেন। 

শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) রাত ৯টায় ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

রঞ্জিত সাহা সীতাকুণ্ডের সোনাইছড়ি ইউনিয়নের বারআউলিয়া নিবাসী মৃত বিনোদ বিহারীর ছেলে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, আগষ্ট মাসের শেষ দিকে জ্বরে আক্রান্ত হন তিনি। টানা কয়েকদিনেও তার জ্বর না কমায় তিনি স্থানীয় সরকারী হাসপাতালে করোনা পরীক্ষার নমুনা দেয়। ফৌজদারহাট বিআইটিআইডিতে নমুনা পরীক্ষা করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে করোনা নেগেটিভ বলে জানায়। কিন্তু এর কয়েকদিনের মধ্যে তার শ্বাস কষ্ট দেখা দেয়। গত ৪ সেপ্টেম্বর তাকে চট্টগ্রামের বেসরকারী মেডিকেল সেন্টার হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। কিন্তু অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে ম্যাক্স হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। পরে পরিবারের লোকজন তাকে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করায়। সেখানে তাকে ভেন্টিলেটর দিয়ে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। এরপর দীর্ঘ চিকিৎসায়ও তার ফুসফুসের উন্নতি হয়নি। সব শেষে শনিবার সকাল থেকে তার অক্সিজেন স্যাচুরেশন দ্রুত কমতে থাকে। রাত ৯টা ১০ মিনিটে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

অধ্যাপক রঞ্জিত সাহা শুভসংঘ ছাড়াও উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদ, পৌরসদর ব্যবসায়ী সমিতিসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃত্বে ছিলেন। তিনি একজন অত্যন্ত পরোপকারী মানুষ হিসেবে এলাকায় সুখ্যাত ছিলেন।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে শোকাহত পরিবারকে সমবেদনা জানিয়েছেন স্থানীয় সাংসদ আলহাজ দিদারুল আলম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল বাকের ভূঁইয়া, উপজেলা চেয়ারম্যান ও থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ এস.এম আল মামুন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিল্টন রায়, ওসি মো. ফিরোজ হোসেন মোল্লা, প্রেসক্লাব সভাপতি সৌমিত্র চক্রবর্তী, সাধারণ সম্পাদক লিটন কুমার চৌধুরীসহ প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীষ্ঠান ঐক্য পরিষদ, পূজা উদযাপন পরিষদ, জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদসহ অসংখ্য সংগঠন। রবিবার সকালে তার নিজ বাড়ি বার আউলিয়ার শ্মশানে তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হয়।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 111 People

সম্পর্কিত পোস্ট