চট্টগ্রাম সোমবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২০

একাদশ শ্রেণির অনলাইন ক্লাস শুরু কাল

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ৫:৩০ অপরাহ্ণ

ইমরান বিন ছবুর

সাড়া মিলছে অনলাইন ক্লাসে

বিকেল পৌনে ৫টা। মোবাইল ও খাতা-কলম নিয়ে পড়ার টেবিলে উপস্থিত আবিদ রহমান। চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির এই শিক্ষার্থীর আজ ইংলিশ ফর টুডে ক্লাস। তখনো ক্লাস শুরু হতে ১০ মিনিট বাকি। এরই মধ্যে মোবাইলের নেট অন করে ‘জেলা প্রশাসন, চট্টগ্রাম’ ফেসবুক পেইজ ওপেন করেছে আবিদ। আজ ক্লাস নিবে তারই বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা কামরুন নাহার ম্যাডাম। ৪টা ৫৫ মিনিটে ক্লাস শুরু করেন ম্যাডাম। নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীরা ভার্চুয়াল ক্লাসে উপস্থিত হয়।

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের অনলাইন ক্লাস সম্পর্কে জানতে চাইলে আবিদ রহমানের মা জানান, দেশে করোনা ভাইরাসে বাচ্চাদের পড়াশুনা মোটেও হয়নি। একদিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ, অন্যদিকে কোচিং বা বাসায় টিউটর আসার সুযোগও ছিল না। মাঝখানে সংসদ টিভির মাধ্যমে বাচ্চাকে ক্লাস করানোর চেষ্টা করেছি। গত ২৫ আগস্ট থেকে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে অনলাইন ক্লাস হলে শিক্ষার্থীরা আবার পড়াশুনার প্রতি কিছু আগ্রহী হয়। এই ক্লাসগুলো অনলাইনে হলেও এখানে পরিচিত ও ভালো শিক্ষকরাই ক্লাস নিচ্ছেন। তাই শিক্ষার্থীরাও অনলাইন ক্লাসের প্রতি অনেকটা আগ্রহী।

তাসনিম মাহিকা ও জান্নাতুল ফেরদৌস নিহা। দু’জনই নগরীর বলুয়ার দিঘি সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির (ব্যবসায় শিক্ষা শাখা) শিক্ষার্থী। রবিবার দুপুর ৩টা ১০ মিনিট থেকে ৩টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত চলে তাদের ইংরেজি গ্রামার ক্লাস। তারাও নির্ধারিত সময়ে অনলাইন ক্লাস করে। জানতে চাইলে তারা বলেছে, অনলাইনে ক্লাস করতে ভালো লাগে। ক্লাসগুলো যেহেতু চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন’র ফেসবুক পেইজে রেকর্ড থাকে, একটা বিষয় তাৎক্ষণিক না বুঝলে পরে আবার দেখা যায়।

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের শিক্ষা শাখার তথ্য মতে, গত ২৫ আগস্ট থেকে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য অনলাইন ক্লাস চালু করে। প্রথম দিকে প্রতিটি ক্লাস ২৫ মিনিট থাকলেও পরবর্তীতে শিক্ষার্থীদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে প্রতিটি ক্লাস ৩০ মিনিট করা হয়। প্রতি রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত প্রতিদিন পাঁচটি করে ক্লাস নেয়া হয়। দুপুর ২টা থেকে শুরু হয়ে ৫টা ২৫ মিনিট পর্যন্ত এসব ক্লাস চলে। প্রতি সপ্তাহের শুরুতেই ‘জেলা প্রশাসন, চট্টগ্রাম’ ফেসবুক পেইজে ক্লাসের রুটিন প্রকাশ করা হয়।

অনলাইন ক্লাস সম্পর্কে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক কামরুন নাহার জানান, চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের অনলাইন ক্লাস অবশ্যই একটি ভালো উদ্যোগ। অনলাইন ক্লাসের লেকচারে শিক্ষার্থীরা কোন টপিক না বুঝলে, তারা সরাসরি প্রশ্ন করতে পারে। অনেকে কমেন্ট করেও জানতে চায়। শিক্ষার্থীরা ভালোই রেসপন্স করছে।

সরকারি মুসলিম হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক এস এম জিয়াউল হায়দার হেনরী জানান, শিক্ষার্থীরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে ক্লাস করছে। শিক্ষার্থী ও অভিভাবকবৃন্দ অনলাইন ক্লাসকে ভালোভাবেই গ্রহণ করেছেন। শিক্ষার্থীরা নিয়মিত অনলাইন ক্লাসে অংশগ্রহণ করছে। এখানে শিক্ষার্থীরা কোন বিষয় না বুঝলে তাৎক্ষণিক প্রশ্ন করার সুযোগ পাচ্ছে।

জানতে চাইলে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) এ.জেড.এম শরীফ হোসেন জানান, করোনাভাইরাসের কারণে থমকে যাওয়া শিক্ষা কার্যক্রমের গতি আনতে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম চালু করেছি। অনলাইন ক্লাসে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কাছ থেকে আমরা ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। প্রতিটি ক্লাসে প্রচুর শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করছে। চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের অধীন অনলাইনে ক্লাস নেয়ার জন্য ৩০০ প্যানেলভুক্ত শিক্ষক রয়েছেন। এরমধ্যে থেকে প্রতি সপ্তাহে ৫০ জন শিক্ষক ক্লাস নেন। প্রতি সপ্তাহের রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত শিক্ষকরা প্রতিদিন পাঁচটি করে ক্লাস নিয়ে থাকেন। অনলাইন ক্লাসে শিক্ষার্থীরা কোন বিষয় না বুঝলে শিক্ষককে তাৎক্ষণিক প্রশ্ন করার সুযোগ রয়েছে।

 

 

 

পূর্বকোণ/পি-আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 126 People

সম্পর্কিত পোস্ট