চট্টগ্রাম বুধবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২০

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ১:৫৯ অপরাহ্ণ

ইমরান বিন ছবুর

প্রশস্ত হবে নগরীর চার সড়ক

নগরীর অভ্যন্তরে চারটি সড়ক প্রশস্ত করার উদ্যোগ নিয়েছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ)। সড়কগুলো প্রশস্ত করা হলে, নগরীর যানজট অনেকাংশে কমে আসবে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা। ইতোমধ্যে সড়কগুলোর ফিজিবিলিটি স্টাডি বা সম্ভাব্যতা যাচাই এর কাজ চলছে। সড়কগুলো হচ্ছে- কাজীর দেউড়ি থেকে গণি বেকারি, মেহেদীবাগ (চট্টেশ্বরী থেকে গোল পাহাড়), লাভলেইন থেকে বৌদ্ধ মন্দির ও আগ্রাবাদ কমার্স কলেজ রোড হয়ে কদমতলী। গত ফেব্রুয়ারি মাস থেকে সড়কগুলোর সম্ভাব্যতা যাচাই এর কাজ শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিডিএ’র প্রধান প্রকৌশলী কাজী হাসান বিন শামস।

সিডিএ সূত্র থেকে জানা যায়, সিডিএ’র ১৯৯৫ সালের মাস্টার প্ল্যানে এই সড়কগুলো প্রশস্ত করার কথা বলা হয়েছে। প্রশস্ত করার উদ্যোগ নেয়া সড়কগুলো গুরুত্বপূর্ণ বলে মাস্টার প্ল্যানে উল্লেখ করা হয়। এই চারটি সড়কের মধ্যে বর্তমানে কোনটির প্রশস্ত ৩৫-৪০ ফিট আবার কোনটি ৫০ ফিট রয়েছে। নতুন নেয়া এই প্রকল্পে সবগুলো সড়ক ৬০ ফিট করার কথা রয়েছে। সড়কগুলো ৬০ ফিট প্রশস্ত করা হলে উল্লেখিত প্রকল্পের সড়কগুলোতে যানজট কমবে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

সিডিএ সূত্র থেকে আরো জানা যায়, এছাড়াও সড়কের উভয় পাশে পথচারীদের হাঁটার জন্য ফুটপাত এবং পানি নিষ্কাশনের জন্য ড্রেন থাকবে। এই চারটি সড়কের সম্ভাব্যতা যাচাই শেষ করতে আরো দু’মাস সময় লাগবে। সম্ভাব্যতা যাচাই শেষ হলে ডিটেইল প্রজেক্ট প্ল্যান (ডিপিপি) মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। নগরীর যানজট কমাতে সিডিএ তিনটি ফ্লাইওভার নির্মাণ করেছে। এছাড়াও বর্তমানে আরো একটি ফ্লাইওভার (এলিভেটেট এক্সপ্রেসওয়ে) নির্মাণাধীন রয়েছে।

সিডিএ’র নগর পরিকল্পনাবিদ আবু ঈসা আনছারী বলেন, মাস্টার প্ল্যান বাস্তবায়ন করতে কিছুটা সময় লাগে, কিন্তু কিছু কিছু প্রকল্প বা রাস্তা রয়েছে যা দ্রুত বাস্তবায়ন না হলে চলবে না। সেসব প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য মাস্টার প্ল্যান একটি ইমিডিয়েট একশন প্ল্যান পাস করেছে। সেখানে অনেকগুলো প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে পেরেছে, অনেকগুলো পারেনি। তবে আমরা মাস্টার প্ল্যানের রাস্তা সংরক্ষণ করেছি। এই রাস্তাগুলো প্রশস্ত করা হলে নগরীর যানজট অনেকাংশে কমে যাবে।

জানতে চাইলে সিডিএ’র প্রধান প্রকৌশলী কাজী হাসান বিন শামস্ বলেন, মাস্টার প্ল্যান অনুাযায়ী শহরের যানজট কমাতে অভ্যন্তরীণ কিছু সড়ক প্রশস্ত করতে হবে। সেই প্ল্যান অনুযায়ী এই চারটি সড়ক প্রশস্ত করতে সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজ শুরু করেছি। আগামী দুই মাসের মধ্যে সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজ শেষ হবে। সম্ভাব্যতা যাচাই শেষ হলে ডিটেইল প্রজেক্ট প্ল্যান (ডিপিপি) মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে।
জানতে চাইলে সিডিএ চেয়ারম্যান এম জহিরুল আলম দোভাষ জানান, সিডিএ’র মাস্টার প্ল্যান অনুযায়ী নগরীতে যানজট কমাতে চারটি সড়ক প্রশস্ত করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এই প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে নগরীর অভ্যন্তরে যানজট অনেকাংশে কমে আসবে।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
  • 893
    Shares
The Post Viewed By: 211 People

সম্পর্কিত পোস্ট