চট্টগ্রাম রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

সন্দ্বীপে বিধবার ঘরে বখাটের হামলা
সন্দ্বীপে বিধবার ঘরে বখাটের হামলা

১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ১০:২৭ অপরাহ্ণ

সন্দ্বীপ সংবাদদাতা

সন্দ্বীপে বিধবার ঘরে বখাটের হামলা

চট্টগ্রামের সন্দ্বীপে বিধবা মহিলার ঘরে ঢুকে মহিলা ও তার সন্তানদের মারধরের অভিযোগ উঠেছে। গত মঙ্গলাবার (৮ সেপ্টেম্বর) রাতে উপজেলার মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মরহুম জসিম উদ্দিনের বাড়িতে হামলার ঘটনাটি ঘটে। হামলায় জসিম উদ্দিনের স্ত্রী জোসনা বেগম (৩২), দুই ছেলে ও দুই শিশুকন্যা আহত হন। হামলাকারী বখাটেদের বিরুদ্ধে ইভটিজিংসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে।

ভুক্তভোগীরা জানান, তিন বছর আগে জসিম উদ্দিন ক্যান্সারে মারা যাওয়ার পর থেকে প্রতিনিয়ত বাড়ির পাশের কয়েকজন বখাটে ঘরের চালায় ঢিল ছুঁড়ে ও ঘরের টিনের বেড়ায় আঘাত করাসহ বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি দেখাত। তার মোবাইল ফোনে কল দিয়ে বিভিন্ন কুপ্রস্তাব দেয়াসহ গভীররাতে ঘর থেকে বের হওয়ার জন্য বলতো। বিষয়টি বখাটেরদের অভিভাবকদের জানালেও তারা কোন ব্যবস্থা নেয়নি। গত মঙ্গলবার রাত আনুমানিক একটায় জোসনা বেগমের বসত ঘরের দরজা ও ঘরের টিনের বেড়ায় লাঠি দিয়ে আঘাত করে। জোসনা বেগম ঘরের ভিতর থেকে ‘কে কে’ বলে চিৎকার করে দরজা খুলে সোহাগ নামের একজন বখাটেকে দেখতে পেয়ে বকাবকি করেন। এতে সোহাগ ক্ষিপ্ত হয়ে জোসনা বেগমকে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে রাশেদ ও ফয়সালকে মোবাইলে কল করে আসতে বলে। কিছুক্ষণের মধ্যে ফয়সাল, রাশেদ ও সোহাগ লাঠিসোঁটা নিয়ে জোছনা বেগম ও তার চার ছেলেমেয়ের উপর হামলা করে। এতে জোসনা বেগমসহ তার দুই ছেলে ও দুই মেয়ে আহত হন।

জোসনা বেগম জানান, আমার স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকে চার ছেলেমেয়ে নিয়ে একা ঘরে থাকি। স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকে রাশেদ, সোহাগ ও ফয়সাল নিয়মিত জ্বালাতন করে আসছে। আমার বড় ছেলে বিয়ে করে শ্বশুরবাড়ি থাকে। আরেকজন প্রতিবন্ধী। আমার পক্ষে কথা বলার কেউ না থাকায় তারা এসব বিষয়ে কাউকে জানালে আমার ছেলেকে মেরে ফেলার হুমকি দিত। এখন আমার ঘরে ঢুকে আমাকেসহ ছেলে-মেয়েদের মারধর করে গেছে। আমি থানায় গেলে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দিয়েছে।

সন্দ্বীপ থানার পুলিশের ওসি বশির আহাম্মদ খান জানান, বিষয়টি সম্পর্কে আমাদের জানা নেই। তবে আমরা অবশ্যই আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেব।

প্রসঙ্গত, রাশেদ, সোহাগ ও ফয়সালের বিরুদ্ধে সাত মাস আগে সাউথ সন্দ্বীপ হাই স্কুলের দশম শ্রেণির এক ছাত্রী, তার বড়বোন ও মাকে ইভটিজিংয়ের অভিযোগ উঠলে সীতাকুণ্ড সার্কেলের এডিশনাল এসপি শম্পা রানী সাহার হস্তক্ষেপে সন্দ্বীপ থানা পুলিশ বিষয়টি কঠোর হস্তে দমন করে।

 

 

 

 

 

 

 

পূর্বকোণ/সীতাকুণ্ড-আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 260 People

সম্পর্কিত পোস্ট