চট্টগ্রাম শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০

রোগীশূন্য রেলওয়ে হাসপাতাল

১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ১:২৪ অপরাহ্ণ

ইমাম হোসাইন রাজু

রোগীশূন্য রেলওয়ে হাসপাতাল

করোনার প্রকোপ যখন চারদিকে, তখন রোগীদের চিকিৎসায় চালু করা হয় চট্টগ্রাম রেলওয়ে হাসপাতাল। কিন্তু চালু হলেও শুরু থেকেই ছিল রোগীর সংকট। যে ক’জন রোগী থাকতো তাও ছিল শয্যার তুলনায় সর্বোচ্চ ৩০ শতাংশ। এরমধ্যে গেল এক মাসে তা নেমে এসেছে শূন্যের কোটায়। যেখানে দেখা দিয়েছে রোগীর সংকট। রোগীর এমন সংকটে যখন প্রায় বন্ধের পথে এ হাসপাতাল, তখন চালু রাখতে বিপরীত ব্যবস্থা নিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ।
এবার এ হাসপাতালে কোভিড রোগীদের বিপরীতে বিদেশ ফেরত প্রবাসীদের জন্য কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেখানে বিদেশ ফেরত অসুস্থ প্রবাসীদের কোয়ারেন্টিন নিশ্চিতে সকল ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য বিভাগ। ইতোমধ্যে হাসপাতালটিতে অসুস্থ তিন বিদেশ ফেরত প্রবাসী ভর্তি আছেন বলেও জানান জেলা সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি।
তিনি পূর্বকোণকে বলেন, ‘শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে যে সকল প্রবাসী দেশে ফেরত আসছেন, এদের মধ্যে যারা অসুস্থ কিংবা যাদের কোভিড সার্টিফিকেট নেই অথবা সার্টিফিকেট আছে কিন্তু অসুস্থবোধ করছেন এমন রোগীদের এ হাসপাতালে কোয়ারেন্টিনের জন্য রাখা হবে। ইতোমধ্যে এমন তিনজনকে মঙ্গলবার হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। তাদের নমুনাও সংগ্রহ করা হয়েছে। যদি কেউ পজিটিভ আসে, তাহলে সেখানে রেখেই চিকিৎসা দেয়া হবে। আর নেগেটিভ আসলে তাকে ছাড় দেয়া হবে।’
এর আগে গেল ২ জুন করোনা উপসর্গ রোগীদের ভর্তির মাধ্যমে সিআরবিস্থ রেলওয়ে হাসপাতালটিতে চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম শুরু করা হয়। সেখানে একশ’ শয্যার কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল হিসেবে রূপান্তর করা হয় বলে স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে জানানো হয়। তবে বাস্তবে ওই হাসপাতালে সর্বোচ্চ ৫৬টি শয্যা ছিল। কিন্তু ছিলনা ওই শয্যা সমপরিমাণ রোগীও। ধীরে ধীরে রোগীর সংখ্যা কমতে থাকায় প্রায় বন্ধের পথে ছিল হাসপাতালটি।
এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. হাসান শাহরিয়ার কবীর পূর্বকোণকে বলেন, ‘এ হাসপাতাল নয়, চট্টগ্রামের সব কয়টি হাসপাতালেই করোনার রোগী কমেছে। তবে যেহেতু এখন বিদেশ থেকে প্রচুর প্রবাসী আসতে শুরু করেছে। তাই তাদের মধ্যে অসুস্থ ব্যক্তি থেকে যেন ভাইরাস না ছড়াতে পারে, সেজন্য সরাসরি এখনে নিয়ে আসতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে বিমানবন্দরেও চিকিৎসকের সংখ্যাও আগের চেয়ে বাড়ানো হয়েছে।’
পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
The Post Viewed By: 196 People

সম্পর্কিত পোস্ট