চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সীতাকুণ্ডে দুবৃর্ত্তের হামলায় অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ আহত ১০

২৮ আগস্ট, ২০২০ | ৮:২১ অপরাহ্ণ

সীতাকুণ্ড সংবাদদাতা

সীতাকুণ্ডে দুবৃর্ত্তের হামলায় অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ আহত ১০

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে সম্পত্তি বিরোধের জেরে দুবুর্ত্তের সশস্ত্র হামলায় অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ ১০জন আহত হয়েছে। এসময় মোটর সাইকেল,সাইনবোর্ড ভাঙচুরসহ নগদ নগদ টাকা লুট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আহত জুয়েল মাহমুদ বাদি হয়ে চারজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত  আরও ২০/২৫ জনকে আসামি করে আজ শুক্রবার ( ২৮ আগস্ট)  দুপুরে সীতাকুণ্ড থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

হামলায় আহতরা হলেন,জুয়েল মাহমুদ,সাজ্জাদ হোসেন,মহসিন উদ্দিন,ইমন,রায়হান,রিসান,সায়েত,মাঈন উদ্দিন,জমির কেয়ার টেকার ফারুক হোসেন ও তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী রিমা আক্তার।

হামলায় আহত জুয়েল মাহমুদ বলেন,হামলাকারী বিভিন্ন সময় আমার সম্পত্তিতে লাগানো সাইন বোর্ড ফেলে দেওয়ার পাশাপাশি আমার কেয়ারটেকারসহ বাগান বাড়িতে থাকা লোকজনকে জায়গা ছেড়ে অন্যত্র চলে যাওযার হুমকি দেয়। বৃহস্পতিবার সকালে আমি ও আমার ভাই,চাচাতো ভাইসহ বেশ কয়েকজনকে নিয়ে উপজেলার বাড়বকুণ্ড ইউনিয়নের অনন্তপুর এলাকায় আমার বাগান বাড়িতে বেড়াতে যায়। বাগান বাড়িতে দীর্ঘক্ষণ ঘুরাফেরার পর আমি আমার ভাইদের সাথে নিয়ে মাটিতে পড়ে থাকা সাইনবোর্ডটি লাগাতে যায়। সাইনবোর্ড লাগানোর সময় বাড়বকুণ্ড নতুনপাড়া এলাকার আখেরুজ্জামান,হানিফ,রাজু ও মামুনের নেতৃত্বে ২০/২৫জন  দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ঘটনাস্থলে এসে সাইনবোর্ড ফেলে দেওয়ার পাশাপাশি অশালীন ভাষায় গালমন্দ করতে থাকেন। একপর্যায়ে দুবৃর্ত্তরা তাদের হাতে থাকা লোহার রড় দিয়ে আমাকে এলোপাথারি মারতে থাকে। এসময় লোহার রডের আঘাতে আমার মাথার ডানপাশ ফেটে রক্তাক্ত হয়ে যায়। হামলাকালে আমাকে বাঁচাতে আমার ছোট ভাই সাজ্জাদ হোসেন ও মহসিন উদ্দিন,রায়হান,রিসান,সায়েত,মাঈন উদ্দিন ছুটে এলে দুবৃর্ত্তরা তাদের লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন। একপর্যায়ে তারা আমার মোটর সাইকেল ভাঙচুরের পাশাপাশি আমার পকেটে থাকা নগদ ৫০ হাজার টাকা লুট করে নেয় এবং বাগান বাড়িতে থাকা আমার কেয়ারটেকারের ঘরে ভাঙচুর চালায়। এসময় তাদের বাঁধা দিতে চাইলে দুবৃর্ত্তরা কেয়ারটেকার ফারুক হোসেনকে আঘাতের পাশাপাশি তার আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী রিমা আক্তারকে পিটিয়ে আহত করেন। হামলাকালে দুবৃর্ত্তের হাত থেকে প্রান বাঁচাতে ৯৯৯ ফোন করলে সীতাকুণ্ড থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আমাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

সীতাকুণ্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ হোসেন মোল্লা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,হামলায় আহত জুয়েল মাহমুদ বাদি হয়ে জড়িত চারজনের নামসহ অজ্ঞাত ২০/২৫জনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত স্বাপেক্ষে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

পূর্বকোণ / সৌমিত্র- আরআর

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
The Post Viewed By: 148 People

সম্পর্কিত পোস্ট