চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

বাঁশখালীতে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন!

২৫ আগস্ট, ২০২০ | ৪:১৭ অপরাহ্ণ

বাঁশখালী প্রতিনিধি

বাঁশখালীতে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন!

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে ছুরিকাঘাতে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন হয়েছে। আজ মঙ্গলবার (২৫ আগস্ট) বাঁশখালী উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের কচুজোম এলাকায় সকাল ৯টার দিকে নিজ বাড়ীর উঠানে এই খুনের ঘটনাটি ঘটে। খবর পেয়ে বাঁশখালী থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সাধনপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের কচুজোন এলাকার মোহাম্মদ ইসহাক ও আমেনা বেগমের ছেলে মোহাম্মদ এমরান প্রকাশ এমদাদ চট্টগ্রাম শহরে সি.এন.জি টেক্সির লাইনম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসছিল। শারীরিক অসুস্থতা ও ঝড় বৃষ্টির কারণে কর্মস্থলে যায় নি। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে পিতা মাতা ও ছোট ভাই সি.এন.জি চালক মোহাম্মদ আমজাদের সাথে শহরের কর্মস্থলে যাওয়া নিয়ে ঝগড়া বিবাদ হয়। একপর্যায়ে রাগ ও অভিমান করে মোহাম্মদ এমরান ঘর থেকে বেরিয়ে গেলে তার পিতা মোহাম্মদ ইসহাক ও মা আমেনা বেগম রাস্তা থেকে ধরে পুনরায় তাকে ঘরে নিয়ে আসে। ঘরের উঠানে এসে আবার তর্ক হলে ছোট ভাই সি.এন.জি চালক মোহাম্মদ আমজাদ ঘর থেকে ছুরি নিয়ে এসে বড়ভাই এমরানের তলপেটে ছুরিকাঘাত করে। এই সময় সে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তার পিতা মাতা শোর চিৎকার করে তাকে আনোয়ারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে পথিমধ্যে মৃত্যু হয়েছে বলে জানান। এই সময় মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে পিতা মাতা পালিয়ে যায়।
স্থানীয়দের অভিযোগ, মোহাম্মদ ইসহাকের পরিবারের ছেলে সন্তানদের মধ্যে প্রায় সময় ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকত। পিতা মাতার সাথে মাদক নিয়ে ঝগড়া বিবাদ করতে দেখা গেছে।

নিহতের শ্বশুর নাজিম উদ্দীন অভিযোগ করেন, দুই বছর পূর্বে কন্যা বৃষ্টি আক্তার আঁখির সাথে মোহাম্মদ এমরানের বিবাহ হয়। তাদের ঘরে ৬ মাসের শিশু ফারিহা আক্তার রয়েছে। আমার কন্যার শ্বশুর মোহাম্মদ ইসহাক খুবই খারাপ প্রকৃতির লোক। সকালে পিতা মাতা হাতে ধরা অবস্থাতেই উঠানে মেয়ের জামাইকে ছুরিকাঘাত করে তার ছোট ভাই।

এ ব্যাপারে নিহতের শ্বশুর নাজিম উদ্দীন বাদী হয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

নিহত পরিবারের আত্মীয় মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম বলেন, মোহাম্মদ এমরান ছুরিকাঘাত হওয়ার পর আনোয়ারা হাসপাতালে এসে দেখি তার মৃত্যু হয়েছে। তাকে চমেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।
সাধনপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন চৌধুরী খোকা বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই ছুরিকাঘাতে মারা গেছেন।
বাঁশখালী থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল করিম মজুমদার বলেন, সাধনপুরে ভাইয়ের হাতে ভাইয়ের খুনের ঘটনায় ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সম্পূর্ণ তথ্য সংগ্রহ করেছে। লাশের সুরত হাল তৈরির পর ময়না তদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর মামলা গ্রহণ করা হবে।
পূর্বকোণ/অনুপম-এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 92 People

সম্পর্কিত পোস্ট