চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০২০

২৪ আগস্ট, ২০২০ | ৯:৩২ অপরাহ্ণ

 কক্সবাজার সংবাদদাতা

রিকশা চালককে হত্যা: এপেক্স শো-রুমের ম্যানেজারসহ ৪জন জেলে

কক্সবাজার শহরের পানবাজার সড়ক এলাকায় মো. আনোয়ার হোসেন (৩৫) নামে এক রিকশা চালককে চোর সন্দেহে পিটিয়ে হত্যার দায়ে এপেক্স জুতার শো-রুমের ম্যানেজারসহ চারজনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করেছে পুলিশ। সোমবার (২৪ আগস্ট) দুপুরে কক্সবাজার পানবাজার সড়কস্থ এপেক্স শো-রুম থেকে তাদের আটক করে বিকালে আদালতে প্রেরণ করে সদর থানা পুলিশ। আদালত তাদের কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন। বিষয়টি পূর্বকোণ অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার সদর থানার ওসি (তদন্ত) মাসুম খান।

কারাগারে প্রেরণ করা আসামীরা হলেন, বর্তমানে কক্সবাজার পানবাজার রোডস্থ এপেক্স শো-রুমের ম্যানেজার নরসিংদি জেলার পলাশ থানার ৫ নাম্বার ওয়ার্ড চরনন্দি এলাকার মো. সেলিম মিয়ার ছেলে মো. রাজু মিয়া (২৬), শো-রুমের কর্মচারী শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ থানার ছয়গাঁও ইউনিয়নের ২ নাম্বার ওয়ার্ড ছয়গাঁও এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে মো. রনি হোসেন (২৬), চট্টগ্রাম চন্দনাইশ থানার বরকল ইউনিয়নের ৩ নাম্বার ওয়ার্ড পশ্চিম কানাই মাদারী এলাকার মো. ইউনুছ কামালের ছেলে মো. তারেক (২৮) ও পটিয়া থানার শোভনদন্ডি ইউনিয়নের ৪ নাম্বার ওয়ার্ড শোভনদন্ডি গ্রামের মৃত মনির আহমদের ছেলে মো. মাসুম উদ্দিন (২২)।

এজাহার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আনোয়ার হোসেন একজন রিকশা চালক। তিনি কক্সবাজার শহরের দক্ষিণ রুমালিয়ারছড়াস্থ টেকনাইফ্যা পাহাড় এলাকার সিরাজ মিস্ত্রির ছেলে। গত ১৩ আগস্ট সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে পানবাজার সড়কে এপেক্স জুতা বিক্রির শো-রুমের সামনে দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় চোর সন্দেহে আনোয়ারকে ধরে শো-রুমের দুইতলায় নিয়ে যায় কর্মচারীরা। দুইতলায় নিয়ে গিয়ে তাকে ব্যাপক মারধর করে শো-রুমের লোকজন। এরপর আনোয়ারকে রাস্তায় ফেলে রাখে এপেক্সের কর্মচারীরা। দুপুর ২ টার দিকে পথচারীদের মাধ্যমে খবর পেয়ে স্বজনরা এসে আনোয়ারকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করান। দীর্ঘ ১১ দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত রোববার (২৩ আগস্ট) দুপুরে মারা যান রিকশা চালক আনোয়ার। এই ঘটনায় ২৩ আগস্ট রাতে কক্সবাজার সদর থানায় মামলা দায়ের করেন আনোয়ারের ছোট ভাই।

পুলিশ জানান, মামলা দায়ের হওয়ার পর সোমবার (২৪ আগস্ট) দুপুরে কক্সবাজার পানবাজারস্থ এপেক্স জুতা শো-রুম থেকে ম্যানেজারসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর বিকালে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

পূর্বকোণ / মজিদ- আরআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 250 People

সম্পর্কিত পোস্ট