চট্টগ্রাম রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০

চকরিয়ার নির্যাতনের শিকার মা-দুই মেয়ের জামিন
চুরির অভিযোগে মা-মেয়েকে নির্যাতন: গ্রেপ্তার ৩ অভিযুক্ত জেলে

২৪ আগস্ট, ২০২০ | ৮:৪৬ অপরাহ্ণ

চকরিয়া-পেকুয়া সংবাদদাতা

চকরিয়ার নির্যাতনের শিকার মা-দুই মেয়ের জামিন

গরু চুরির অপবাদে রশি দিয়ে বেঁধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক মারধরের ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত পাঁচজনের মধ্যে মা-মেয়েসহ তিনজনকে জামিন দিয়েছে আদালত। আজ সোমবার সকালে চকরিয়া জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেট রাজিব কুমার দেব এই জামিন দেন।

জামিন প্রাপ্তরা হলেন- চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার কুসুমপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের আবুল কালামের স্ত্রী পারভীন আক্তার, তার মেয়ে সেলিনা আক্তার ও রোজিনা আক্তার।

চকরিয়া আইনজীবি সমিতির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট ওমর ফারুক বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রবিবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি তুলে ধরে চকরিয়া জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিজ্ঞ বিচারক রাজিব কুমার দেবের আদালতে আসামীদের জামিনের জন্য প্রার্থনা করেন এডভোকেট ইলিয়াছ আরিফের নেতৃত্বে একদল আইনজীবি।

এসময় আদালতের বিচারক রাজিব কুমার দেব আসামীদের আদালতে উপস্থিত করার জন্য নির্দেশ দেন। পরে পুলিশ সোমবার সকালে মা পারভীন আক্তার ও মেয়ে সেলিনা আক্তারকে আদালতে উপস্থিত করেন। এসময় আদালত মা-মেয়েসহ তিনজনকে জামিন দেন। অন্য দুই আসামীর জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউনিয়নে গরু চুরির অপবাদে মা-মেয়েসহ পাঁচজনকে রশি দিয়ে বেঁধে নির্যাতন করে স্থানীয় লোকজন। পরে তাদের রশি দিয়ে বেঁধে প্রকাশ্যে সড়কে ঘুরিয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলাম মিরান পরিষদে নিয়ে গিয়ে দ্বিতীয় দফায় মারধর করেন। এতে তারা অসুস্থ হয়ে যায়। এ সংবাদ পেয়ে পুলিশ তাদের উদ্ধার করেন। পরে গরু চুরির অভিযোগ এনে স্থানীয় বাসিন্দা মাষ্টার মাহমুদুল হক শুক্রবার রাতে বাদি হয়ে চকরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরের দিন শনিবার সকালে আসামীদের আদালতে উপস্থিত করা হলে মামলার প্রেক্ষিতে আদালত তাদের জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ প্রদান করেন।

পূর্বকোণ / জাহেদ – আরআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 101 People

সম্পর্কিত পোস্ট