চট্টগ্রাম সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

লোহাগাড়ায় বিদুৎস্পৃষ্ট হয়ে মা ও মেয়ের মর্মান্তিক মৃত্যু
চট্টগ্রামে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে শ্রমিকের মৃত্যু

১৮ আগস্ট, ২০২০ | ১:৩৯ অপরাহ্ণ

লোহাগাড়া সংবাদদাতা

লোহাগাড়ায় বিদুৎস্পৃষ্ট হয়ে মা ও মেয়ের মর্মান্তিক মৃত্যু

লোহাগাড়া উপজেলার আধুনগর ইউনিয়নের ঘাটিয়ার পাড়া এলাকার গ্লোবাল ব্যাংকের পেছনের ডোবায় বিদুৎস্পৃষ্ট হয়ে মা ও মেয়ের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা কক্সবাজার জেলার পেকুয়া মগনামা শরৎঘোনা ১ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার বাদশা মিয়ার স্ত্রী রাশেদা বেগম (৩৭) ও তার মেয়ে ময়না আক্তার (১৩)। বাদশা মিয়া একজন দিন মুজুর। তিনি স্ত্রী, পুত্র ও কন্যা নিয়ে ভাড়া বাসায় থাকেন।

সূত্রে জানা গেছে, নিহতরা লোহাগাড়া সদর বায়তুন নুর পাড়া এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন। সোমবার (১৭ আগস্ট)  দুপুর ১টায় নিহত ময়না বাড়ি থেকে বের হয়ে শাক তুলতে যায়। এই সময় ময়না গ্লোবাল ব্যাংক লি. এর আধুনগর শাখার পেছনের পরিত্যক্ত ডোবাতে শাক তুলতে গিয়ে বৈদ্যুতিক ছেঁড়া তারে জড়িয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যায়।  ওই সময় তার  শোর-চিৎকার শোনা গেলেও স্থানীয়রা ওইখানে  কাউকে দেখতে পাননি।

অপরদিকে,মেয়ে ময়নার সন্ধান না পেয়ে মাতা-পিতা এক প্রকার পাগল হয়ে যান।  মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৬ টার দিকে মেয়েকে খুঁজতে বের হন মা রাশেদা। ওই সময় পরিত্যক্ত ডোবাতে মেয়ের মৃতদেহ ভাসতে দেখে চিৎকার দিয়ে মা রাশেদা মেয়েকে কোলে তুলতে মেয়ের মৃতদেহ জড়িয়ে ধরেন। এই সময় মা রাশেদা ও বিদুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যান।

নিহত হওয়ার ঘটনাটি পল্লী বিদুৎ সমিতি লোহাগাড়া অফিসের ডিজিএম সারওয়ার জাহান নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ‘ছেঁড়া বিদুৎ তারটি তাঁদের বৈধ লাইনের তার নয়। উক্ত ছেঁড়া তারটি অবৈধভাবে নেয়া সাইড় কানেকশনের  তার। তদন্ত সাপক্ষে এই ব্যাপরে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।

নিহত রাশেদা ৪ কন্যা ও ১ ছেলে সন্তানের জননী। নিহতের স্বামীর নাম বাদশা মিয়া। তিনি স্ত্রী ও মেয়ের লাশ দেখে অজ্ঞান হয়ে পড়েন।

খবর পেয়ে থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। পুলিশ লাশ দু’টি উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নিয়ে আসেন।

এসআই আব্দুল হক জানান, ঘটনার খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে ঘটনাস্থল থেকে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে নিহত মা-মেয়ে দু’জনের লাশ  ময়নাতদন্তে প্রেরণ করার জন্য থানা হেফাজতে নিয়ে আসেন। 

লোহাগাড়া পল্লী বিদ্যুৎ জোনাল অফিসের ডিজিএম মো. সারওয়ার জাহান বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক লাইনম্যান গিয়ে ছেঁড়া তার উদ্ধার করেন।

এ ঘটনায় এজিএম প্রশান্ত বিশ্বাসের নেতৃত্বে ২ সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।

 

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 87 People

সম্পর্কিত পোস্ট