চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

রাউজানে দুই পরিবার পেল পাকা বাড়ি দুজন পেলেন মুদি দোকান

১৬ আগস্ট, ২০২০ | ১২:৩৭ অপরাহ্ণ

রাউজান সংবাদদাতা

রাউজানে দুই পরিবার পেল পাকা বাড়ি দুজন পেলেন মুদি দোকান

রাউজানে সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মানবিক সহায়তায় দুটি অসহায় পরিবারকে পাকা বাড়ি ও ২ জনকে মালামালসহ মুদির দোকান প্রদান করা হয়েছে। জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে এই ঘর ও দোকান হস্তান্তর করেন সাংসদপুত্র ফারাজ করিম চৌধুরী।

ফাউন্ডেশন সূত্রে জানা গেছে, রাউজান পৌরসভার ৫নম্বর ওয়ার্ডের জলদাশ পাড়ার সবুজ জলদাশ ও প্রতিবন্ধি মুহাম্মদ মহিউদ্দিনকে সেমিপাকা করে ঘর নির্মাণ করে দেয়া হয়। একইভাবে রাউজান ফকিরহাট বাজারে সেকান্দর হোসেনকে সবজির দোকান ও ডাবুয়া ইউনিয়নের হাসান খীল এলাকার দরিদ্র প্রতিবন্ধি জামাল উদ্দিনকে মুদির দোকান করে দেয়া হয়। এসব কাজে সার্বিক সহযোগিতা করেন পৌরসভার পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও উপজেলা যুবলীগ সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজ। শুক্রবার বিকেলে এসব ঘর ও দোকান উদ্বোধন করেন সাংসদ পুত্র ফারাজ করিম চৌধুরী। এসময় উপস্থিত ছিলেন পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও উপজেলা যুবলীগ সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজ, কাউন্সিলর জানে আলম জনি, ডাবুয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবদুর রহমান চৌধুরী, চিকদাইর ইউপি চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী, ডাবুয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন চৌধুরী সাবু, উপজেলা যুবলীগের সহ সভাপতি সুমন দে, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জিল্লুর রহমান মাসুদ, সাধারণ সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন চৌধুরী পিবলু, আওয়ামী লীগ নেতা বদরুল হায়দার চৌধুরী হারু, নুরুল আবছার, মৃদুল দাশগুপ্ত, যুবলীগ সাবের হোসেন, আসাদ হোসেন, ছাত্রনেতা মো. আসিফ, সেন্ট্রাল বয়েজ অব রাউজান’র সভাপতি সাইদুল ইসলাম, সিরাজুল মুনির শাওন, আরমান সিকদার, মেম্বার আজাদ হোসেন সিকদার, সাজ্জাদ মাহমুদ, ফয়সাল মাহমুদ, লিটন দেবনাথ, মোহাম্মদ এরশাদ প্রমুখ।

এ প্রসঙ্গে পৌরসভার দ্বিতীয় প্যানেল মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ বলেন, ‘তিন বছর ধরে ফারাজ করিম চৌধুরী রাউজানে শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও মানবিক কর্মসূচি নিয়ে কাজ করছেন। তিনি করোনাকালে মানুষের সেবায় বহুমুখী অবদান রেখেছেন। তার প্রতিষ্ঠিত সেন্ট্রাল বয়েজ অব রাউজান ও লাশ দাফন-সৎকারে আশার আলোর ব্যানারে থাকা শতাধিক স্বেচ্ছাসেবীরা তার প্রতিটি কর্মসূচি চালিয়ে আসছে।’

ফারাজ করিম বলেন ‘আমাদের রাজনীতি মানুষের কল্যানে। বঙ্গবন্ধু সব সময় সুখী বাংলাদেশের কথা চিন্তা করতেন। দু:স্থ মানুষদের ঘর ও দোকান গড়ে দিতে পেরে আনন্দ লাগছে।’

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 175 People

সম্পর্কিত পোস্ট