চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০১ অক্টোবর, ২০২০

ইয়াবাসহ আটকের পর মিলল চোরাই স্বর্ণের খোঁজ

২৮ জুলাই, ২০২০ | ২:১৪ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

ইয়াবাসহ আটকের পর মিলল চোরাই স্বর্ণের খোঁজ

নগরীর কোরবানীগঞ্চ থেকে চোরাই স্বর্ণ কেনা-বেচার অভিযোগে দুই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- কোর নগরীর কোরবানীগঞ্চ থেকে চোরাই স্বর্ণ কেনা-বেচার অভিযোগে দুই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে করেছে পুলিশ। বানীগঞ্জের মৃত লালমোহন বণিকের ছেলে দুলাল বণিক (৫৩) ও কুমিল্লা থানার হোমনা থানার আহেদ আলীর ছেলে আনোয়ার (২৮) বর্তমানে সে বাকলিয়া থানার তুলাতলী এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকে।

সোমবার (২৭ জুলাই) দুপুর ২টা ২০ মিনিটের দিকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) দুপুরে নগর পুলিশের দক্ষিণ জোনের উপকমিশনার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) শাহ মুহাম্মদ আব্দুর রউফ এ তথ্য জানান। এ সময় কোতোয়ালী জোনের সহকারী কমিশনার নোবেল চাকমা, কোতোয়ালী থানার ওসি মোহম্মদ মহসীন ও পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কামরুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন।

তিনি বলেন, সোমবার দুপুর ২টার পর কোতোয়ালী থানার গনি বেকারীর মোড় থেকে ২১টি ইয়াবাসহ আনোয়ার নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে। জিজ্ঞাসাবাদে আনোয়ার একাধিক মাদক, অস্ত্র ও চুরির মামলার আসামি বলে স্বীকার করে।

আনোয়ার আরও জানায়, কোরবানীগঞ্জ এলাকায় দুলাল বনিক নামের এক ব্যক্তির কাছে সে চোরাই স্বর্ণালঙ্কার বিক্রয় করে এবং আরও অনেক চোর থেকেও উক্ত দুলাল বনিক চোরাই স্বর্ণ কিনে থাকে।

এ তথ্য পেয়ে কোরবানীগঞ্জ দুলাল বণিকের বাসায় অভিযানে যায় কোতোয়ালী থানা পুলিশ। অভিযানে বাসার আলমারির ড্রয়ারে ১৭ ভরি ১২ আনা ৩ রতি চোরাই স্বর্ণালঙ্কার পাওয়া যায়। এসময় তার জব্দকৃত স্বর্ণালঙ্কারের কোন বৈধ কাগজপত্র পাওয়া যায়নি।

কোতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন বলেন, আনোয়ারসহ তিনি বিভিন্ন স্বর্ণ চোরদের কাছ থেকে কম মূল্যে স্বর্ণ ক্রয় করেন। এরপর চট্টগ্রাম শহরে বিভিন্ন লোকের কাছে অধিক মূল্যে তা বিক্রি করেন।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 264 People

সম্পর্কিত পোস্ট