চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

২৩ জুলাই, ২০২০ | ১:২৭ অপরাহ্ণ

ইমাম হোসাইন রাজু

করোনা সনদ

অন্তহীন ভোগান্তিতে প্রবাসীরা

করোনার সনদ পেতে প্রতিদিনেই চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ে ভিড় করছেন বিদেশগামী যাত্রীরা। কিন্তু টাকা জমা দেয়া, নমুনা সংগ্রহ আর ফলাফল প্রাপ্তিতে ভোগান্তি যেন কমছেই না তাদের। অনেকটা বিশৃঙ্খলার মধ্যেই চলছে এ কার্যক্রম। এই পুরো প্রক্রিয়া নিয়ে অসন্তোষ বিদেশযাত্রীদের।

তাদের ভাষ্য, যথাসময়ে রিপোর্ট নিয়ে বিদেশ যাওয়া সম্ভব হবে কিনা, তা নিয়েও শংকিত তারা। যদিও স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে বলা হচ্ছে, যথাসময়ের মধ্যেই সকলকেই সনদ প্রদান সম্ভব হবে। কিন্তু গতকাল বুধবারও প্রাপ্ত সনদগুলো কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য বিভাগের ওয়েবসাইটে আপলোড দিতেও ব্যাপক ঝামেলা পোহাতে হয়েছে।

স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, গত সোমবার শুরু হওয়ার পর গতকাল বুধবার পর্যন্ত ৬২৭ জন বিদেশ যাত্রীর নমুনা পরীক্ষার জন্য টাকা জমা দিয়েছে সিভিল সার্জন কার্যালয়ে। এদের মধ্যে প্রথম দিনে অর্থ সংগ্রহ করা হয়েছে ২৯৪ জনের। দ্বিতীয়দিনে ১৭৯ জন এবং গতকাল বুধবারে ১৫৪ জনের অর্থ সংগ্রহ করা হয়। কিন্তু এখন পর্যন্ত মাত্র ২৮৮ জনের সনদ প্রদান করতে সক্ষম হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি।

এদিকে, পৃথক পৃথকভাবে প্রক্রিয়া সম্পন্নের স্থান নির্ধারণ হওয়ায় চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে বলে অভিযোগ অনেক যাত্রীদের। তারমধ্যে সিভিল সার্জন কার্যালয়ে অর্থ জমা দেয়ার পর জেনারেল হাসপাতালে এসে নমুনা দিতে হচ্ছে তাদের। তারপর পুনরায় সনদ নিতে সিভিল সার্জন কার্যালয়ে যেতে হচ্ছে। তিনধাপের এ কার্যক্রম নিয়ে স্বাস্থ্য বিভাগের নিজেদের মধ্যেই সমন্বয় নেই বলেও অভিযোগ অনেকের। তারমধ্যে সিভিল সার্জন কার্যালয়ে অর্থ সংগ্রহ ও রেজিস্টেশনের জন্য দুটি বুথ তৈরি করা হলেও, বৃষ্টির মধ্যে ভিজে ভিজেই লাইনে দাঁড়াতে হচ্ছে বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে আসা বাসিন্দাদের।

তবে সব বিষয়ে নজরে নিয়ে সমাধানের কাজ চলছে বলেও উল্লেখ করেছেন সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি। তিনি পূর্বকোণকে বলেন, ‘কিছুকিছু সমস্যা হচ্ছে, তা সমাধানের চেষ্টা চলছে। সবস্থানেই আগে থেকে জনবলের অভাব রয়েছে। এছাড়া রেজিস্টেশন বুথের জন্য সাধারণ মানুষ বৃষ্টিতে ভিজতে হচ্ছে, বিষয়টি সমাধানে প্যান্ডেলের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।’

‘সনদ নিয়ে কোন যাত্রীর সমস্যা হবে না জানিয়ে সিভিল সার্জন আরও বলেন, সবাইকেই বিমানবন্দরে সনদ প্রদর্শন করতে হবে এবং দায়িত্বরত কর্মকর্তা তা ওয়েবসাইটে দেখবেন। কিন্তু দু’দিন থেকে ওয়েবসাইটেও কিছু সমস্যা হচ্ছে। সেখানে সনদ আপলোড দেয়া যাচ্ছে না। যদিও এ বিষয়টি ঊর্ধ্বতনদের অবহিত করা হয়েছে। আশা করছি, সেটিও শীঘ্রই সমাধান হবে।’

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 145 People

সম্পর্কিত পোস্ট