চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর, ২০২০

১২ জুলাই, ২০২০ | ১:২৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

চমেকে নওফেল: ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ১৫ জন আহত

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। আজ রবিবার (১২ জুলাই) সকালে সাড়ে ১০ দিকে এ ঘটনা ঘটে। এতে চার পুলিশ সদস্যসহ উভয় গ্রুপের ১৫ জন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী ও অপর পক্ষ স্থানীয় সংসদ সদস্য শিক্ষা উপ-মন্ত্রী ব্যারিস্টার মুহিবুল হাসান নওফেলের অনুসারী হিসেবে পরিচিত।

জানা যায়, করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসায় দুটি হাই ফ্লো নাসাল ক্যানুলা দিতে শিক্ষা উপ-মন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এবং সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিম সকালে চট্টগ্রাম মেডিকেলে যান। তারা পরিচালকের কক্ষে প্রবেশের পর ছাত্রলীগের দুই পক্ষের নেতাকর্মীরা সেখানে জড়ো হন। উপ-মন্ত্রী পরিচালকের কার্যালয় থেকে বের হয়ে চলে যাবার সময় দুই পক্ষ স্লোগান দিতে থাকে। এক পর্যায়ে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। এতে উভয় গ্রুপের ১৫ জন আহত হন। 

মেয়র অনুসারী হিসেবে পরিচিত চমেক ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান জানান, শিক্ষা উপ-মন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল মহোদয় হাসপাতাল ছেড়ে যাওয়ার পর চমেক ছাত্রলীগ পরিচয় দেয়া কয়েকজন আমাদের উপর হামলা চালালে তাতে আমাদের ইন্টার্ন চিকিৎসকসহ পাঁচজন আহত হয়।

উপ-মন্ত্রী নওফলের অনুসারী হিসেবে পরিচিত পক্ষের  খোরশেদ বিন মেহেদী জানান এ ঘটনায় তিনিসহ অভিজিৎ দাশ, কনক দেবনাথ, ফরহাদুল ইসলাম, হোজাইফা কবির ও ইমন সিকদার আহত হয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।  

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জহিরুল হক ভূইয়া পূর্বকোণকে বলেন, ‘ঘটনার পর ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে৷  দুই গ্রুপের মারামারি থামাতে গিয়ে আমিসহ পাঁচলাইশ থানার সেকেন্ড অফিসার এস আই আবু তালেব ও এস আই আলমগীর ও এক পুলিশ সদস্য  আহত হয়েছেন । 

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 299 People

সম্পর্কিত পোস্ট