চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর, ২০২০

লোহাগাড়ায় গুলিতে কিশোর নিহত

১১ জুলাই, ২০২০ | ১১:৩৪ পূর্বাহ্ণ

বান্দরবান সংবাদদাতা

বান্দরবানে সন্ত্রাসী-সেনাবাহিনী গোলাগুলি, নারী নিহত

বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের সাথে সেনাবাহিনীর গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে এক নারী নিহত ও ৬ বছরের এক শিশু আহত হয়েছে।

শুক্রবার (১০ জুলাই) সন্ধ্যা ৭ টার দিকে উপজেলার দুর্গম নাইতিং ঝিড়ি এলাকায়। ঘটনার পর ওই এলাকায় সেনাবাহিনীর টহল জোরদার করা হয়েছে। গত ৭ জুলাই রাজবিলা ইউনিয়নের বাঘমারা বাজার পাড়ায় সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের গুলিতে জনসংহতি সমিতির সংস্কারপন্থী গ্রুপের ৬ সদস্য নিহত হওয়ার তিন দিনের মাথায় এ ঘটনা ঘটলো।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সশস্ত্র একদল সন্ত্রাসী দুর্গম অংগাই পাড়া সংলগ্ন নাইতিং ঝিড়ি এলাকায় অবস্থান করছে এমন খবর পেয়ে ওই এলাকায় সেনাবাহিনীর একটি টহল দল উপস্থিত হলে তাদের লক্ষ্য করে সন্ত্রাসীরা বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়ে।

রোয়াংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোহিদ কবির জানিয়েছেন, ঘটনার সময় পাহাড়ের জুম ঘরে থাকা শান্তি লতা তঞ্চঙ্গ‍্যা (৩০) ও তার সাথে থাকা সাত বছরের শিশু অর্জুন তঞ্চঙ্গ‍্যা গুলিবিদ্ধ হয়। পরে আহতদের সেনাবাহিনী ও স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতাল আনার সময় শান্তি লতা মারা যায়। আহত শিশুটিকে রাতে বান্দরবান সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে।

নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, জনসংহতি সমিতির সন্তু লারমা গ্রুপের সশস্ত্র সদস্যরা ওই এলাকায় অবস্থান করছে এমন খবর পেয়ে সেনাবাহিনীর টহল দল সেখানে উপস্থিত হলে সন্ত্রাসীরা লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এদিকে বাগমারার সংস্কারপন্থী গ্রুপে ৬ সদস্য হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জনসংহতি সমিতির সন্তু লারমা গ্রুপের ১০ নেতাকর্মীসহ অজ্ঞাত মোট ২০ জনকে আসামি করে বান্দরবান সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এই ঘটনায় এখনো কাউকে আটক করা যায়নি বলে পুলিশ জানিয়েছে। স্থানীয়দের নিরাপত্তায় বাঘমারা বাজারে পুলিশের একটি অস্থায়ী ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের ধরতে সেনাবাহিনী ও পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 245 People

সম্পর্কিত পোস্ট