চট্টগ্রাম শনিবার, ১৫ আগস্ট, ২০২০

সর্বশেষ:

সীতাকুণ্ডে মসজিদের ফলক ভাঙার ঘটনায় ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার
সীতাকুণ্ডে মসজিদের ফলক ভাঙার ঘটনায় ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার

১০ জুলাই, ২০২০ | ১১:৫৭ অপরাহ্ণ

সীতাকুণ্ড সংবাদদাতা

সীতাকুণ্ডে মসজিদের ফলক ভাঙার ঘটনায় ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে মডেল মসজিদ ও ইসলামী সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের উদ্বোধনী ফলক ভাঙচুরের ঘটনায় এক ইউপি সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার (১০ জুলাই) তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়। সীতাকুণ্ড পুলিশ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

জানা যায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় সারাদেশের মত উপজেলার মুরাদপুর ইউনিয়নের ফকিরহাট এলাকায় মডেল মসজিদ ও ইসলামী সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের নির্মাণ কাজ শুরু হয়। স্থানীয় সাংসদ দিদারুল আলম গত ২৩ জুন এটির নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করেন। কিন্তু উদ্বোধনের দু’দিন পর ২৫ জুন রাতে দুষ্কৃতিকারীরা মসজিদের নিরাপত্তা প্রহরীকে মারধর করে উদ্বোধনী ফলকটি ভেঙে দেয়। এ ঘটনায় পরদিন সাংসদের পিএস মো. নজরুল ইসলাম বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামা দুস্কৃতিকারীদের আসামি করে সীতাকুণ্ড থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনার পর থেকে আসামিদের গ্রেপ্তারে উপজেলা ছাত্রলীগ পৌরসদর, ভাটিয়ারী ও কুমিরায় মানববন্ধন করে।

এদিকে, গতকাল বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) রাতে অভিযান চালিয়ে মসজিদ ভাঙার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে উপজেলার মুরাদপুর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও ওই ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি একরামুল হক টিটুকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। আজ শুক্রবার (১০ জুলাই) দুপুরে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়।
সীতাকুণ্ড থানার ওসি ফিরোজ হোসেন মোল্লা সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, উদ্বোধনী ফলকে এমপির নাম থাকায় সেটি ভাংচুর করা হয়েছিল। মডেল মসজিদ ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্র ভাঙচুরের ঘটনায় চট্টগ্রাম-৪ আসনের এমপি আলহাজ দিদারুল আলমের পিএস নজরুল ইসলাম বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন। ঘটনার তদন্তে ইউপি সদস্য একরামুল হক টিটুর সম্পৃক্ততা পেয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আরো কেউ জড়িত থাকলে তাকেও গ্রেপ্তার করা হবে।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম-৪ আসনের এমপি আলহাজ দিদারুল আলম বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় সারাদেশের মত সীতাকুণ্ডেও মডেল মসজিদ ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণ করা হচ্ছে। এটি আমি উদ্বোধন করেছি। এরপরেই একটি মহল এটি ভেঙে দিয়েছি। মামলা করা হয়েছে। কিন্তু নির্দিষ্ট কোন আসামির নাম দেয়া হয়নি। পুলিশ তদন্তের মাধ্যমে আসামি গ্রেপ্তার করেছে। ঘটনার সাথে অন্য কেউ জড়িত থাকলে তাকেও দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবিও জানান তিনি।

 

 

 

 

 

পূর্বকোণ/সৌমিত্র-আরপি

The Post Viewed By: 141 People