চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০২০

আনোয়ারায় দশম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগ, যুবক গ্রেপ্তার

১০ জুলাই, ২০২০ | ১২:৩১ পূর্বাহ্ণ

সীতাকুণ্ড সংবাদদাতা

বিয়ের ৭ মাসের মাথায় গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার, স্বামী গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে প্রেম করে পালিয়ে বিয়ে করার ৭ মাস পর এক যুবতীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত যুবতীর নাম জান্নাতুল ফেরদৌস জলি (২০)। এ ঘটনায় আজ বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) দুপুরে নিহত যুবতীর বাবা বাদি হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযুক্ত আসামি মেয়েটির স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ থানার আলিপুর গ্রামের সাইফুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানার আগ্রাবাদ এলাকায় বসবাস করছিলেন। এখানে পরিচয়ের সূত্র ধরে তার মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস জলির সাথে সীতাকুণ্ডের সলিমপুর ইউনিয়নের জঙ্গল ছলিমপুর ছিন্নমূল লোকমানের খামার এলাকার মরহুম মাহাবুব আলমের ছেলে তুহিন ইসলামের (২৪) প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

একপর্যায়ে গত ৭ মাস আগে জলি অবিভাবকদের না জানিয়ে গোপনে ৩ লাখ টাকা কাবিননামায় তুহিনকে বিয়ে করে। পরবর্তীতে বিষয়টি জানাজানি হয়। কিন্তু বিয়ের পর থেকেই তার স্বামী বিভিন্ন অজুহাতে তাকে নির্যাতন করতে থাকে। গত মঙ্গলবার (৭ জুলাই) রাত ১১টার দিকে জলি তার বাবাকে ফোন করে জানায় যে তার স্বামী তুহিন তাকে মারধর করছে। এরপর ভোর আনুমানিক ৫টায় মেয়ের জাল রূপা বেগম ফোন করে জানায় জলি স্বামীর ঘরে গলায় ফাঁস দিয়েছে। এরপর তিনি আত্নীয় স্বজনদের সাথে নিয়ে গলায় ওড়না দেওয়া অবস্থায় মেয়ের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পান। এরপর পুলিশে খবর দিলে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে নিয়ে যান।

সীতাকুণ্ড থানার ওসি (তদন্ত) সুমন বণিক জানান, এ ঘটনায় নিহত জান্নাতুল ফেরদৌস জলির বাবা সাইফুল ইসলাম বাদি হয়ে মামলা দায়ের করার পর অভিযুক্ত তুহিন ইসলামকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

 

 

 

পূর্বকোণ/সৌমিত্র-আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 264 People

সম্পর্কিত পোস্ট