চট্টগ্রাম বুধবার, ০২ ডিসেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

৬ জুলাই, ২০২০ | ৫:৩২ অপরাহ্ণ

হাটহাজারী সংবাদদাতা

ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে আপত্তিকর পোস্ট, ইমাম গ্রেপ্তার

‘ধুর! আবুল তাবোল উইকেট পড়তেছে, আমরা সরাসরি জননীর আশায় আছি’ সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইঙ্গিত করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মানহানিক এমন  পোস্ট দেয়ার অপরাধে আবদুল কাইয়ুম ফতেপুরী নামের এক ইমামকে গ্রেপ্তার করেছে হাটহাজারী মডেল থানা পুলিশ।

রবিবার (৫ জুলাই) রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পার্বত্য খাগড়াছড়ি জেলা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত আব্দুল কাইয়ুম ফতেহপুরী উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের লতিফ পাড়া এলাকার কাশেম শিকদার বাড়ির আব্দুল মালেকের পুত্র।

থানা সুত্রে জানা গেছে, গত মাসে  সদ্য প্রয়াত আওয়ামী লীগের দুই নেতা সাবেক স্বাস্থ্য মন্ত্রী মো. নাসিম ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আবদুল্লাহ এমপি’র মৃত্যু নিয়ে উপহাস করে আবদুল কাইয়ুম ফতেপুরী তার নিজ আইডি থেকে আপত্তিকর স্ট্যাটাস দেয়। সেখানে আবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়েও সরাসরি  জননীর আশায় আছে বলে মন্তব্য করেন। এটি সামাজিক যোগাযোগ  ফেসবুকের মাধ্যমে হাটহাজারী উপজেলার ছাত্রলীগের নেতা কর্মীদের নজরে পড়লে তার বিরুদ্ধে উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য মোনায়েম আহমেদ সুহান, কলেজ ছাত্রলীগ নেতা সাইফুর রহমান মুন্না, উপজেলা ছাত্রলীগের ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক আবদুল্লাহ আল মামুন জয়, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা কে আই জিহান ও কলেজ ছাত্রলীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান হায়াতসহ ৫ জন ছাত্রলীগ নেতাকর্মী অভিযোগ দায়ের করেন। এর পরে অভিযোগ দায়ের করেন হাটহাজারী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুর রহমান রাসেল। তবে গত ১৯ জুন  উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতির অভিযোগ আমলে নিয়ে মামলা হিসেবে লিপিবদ্ধ করা হয়, যার নম্বর- ১১।

ছাত্রলীগের মামলা দায়ের করার বিষয়টি জানান পরে আবদুল কাইয়ুম ফতেপুরী আত্মগোপনে চলে যায়। তাকে আটকের জন্য পুলিশ তার নিজ বাড়িসহ কর্মস্থল সন্দ্বীপ জেলাতেসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করেন। তবে আটক করা সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে মুঠোফোনে মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ আলম জানান, ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে মানহানিকর পোস্ট দেয়ার পর উপজেলা সভাপতি আরিফুর রহমান রাসেল বাদী হয়ে একটি মানহানিকর মামলা দায়ের করে। ওই মামলার সূত্র ধরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে  থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রাজিব শর্মার নেতৃত্বে থানা পুলিশের একটি দল পার্বত্য এলাকা খাগড়াছড়ি সদর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।

আটককৃত আব্দুল কাইয়ুম সন্দীপ জেলাতে একটি মসজিদে ইমামতির চাকুরী করত। ফেসবুকে পোস্ট দেয়ার পর থেকে কর্মস্থল থেকে আত্মগোপন করে সে। মামলার বিষয়টি জানতে পেরে নিরাপদ স্থান হিসেবে পার্বত্য এলাকার খাগড়াছড়িতে আশ্রয় নেয়। সেখানে সে ধর্মীয় লেবাস পরিবর্তন করে  শার্ট-প্যান্ট পরে  ইলেট্রিশিয়ানের কাজ নেয়। সেখান থেকে আটক করে সোমবার দুপুর ১২টার দিকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয় বলেও ওসি জানান।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 308 People

সম্পর্কিত পোস্ট