চট্টগ্রাম রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০

সর্বশেষ:

উখিয়ায় সালিশ বৈঠকে হামলা, আহত ৩

৩০ মে, ২০২০ | ১২:১১ পূর্বাহ্ণ

উখিয়া সংবাদদাতা

উখিয়ায় সালিশ বৈঠকে হামলা, আহত ৩

কক্সবাজারের উখিয়ায় সালিশ বৈঠক চলাকালে প্রতিপক্ষের হামলায় ৩ জন আহত হয়েছেন। আজ শুক্রবার (২৯ মে) বিকেল ৪টার দিকে উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ড উত্তর পুকুরিয়া জাফর আলমের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

হামলায় আহতরা হলেন, ওই এলাকার মরহুম বদিউর রহমানের ছেলে জাফর আলম (৫০), তার স্ত্রী জাহানারা বেগম (৪০) ও ছেলে মো. ইছমাইল (২১)। আহতরা বর্তমানে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

আহত জাফর আলম জানান, পাশের বাড়ির ওমান প্রবাসীর স্ত্রী ইয়াছমিন আক্তারের (২৪) বাড়িতে প্রায় সময় বহিরাগত লোকজন আমার বাড়ির পার্শ্বের রাস্তা দিয়ে আসা যাওয়া করে। এরই ধারাবাহিকতায় গত বুধবার (২৭ এপ্রিল) রাত ১১টায় অজ্ঞাতনামা একজন লোক প্রবাসী স্ত্রী ইয়াছমিনের বাড়িতে যাওয়ার সময় আমার বাড়িতে উঁকি দিলে আমার ছেলে বাধা দেয়। এ সময় ইয়াছমিন বাড়ি থেকে বের হয়ে আমার ছেলেকে অশালীনভাবে গালি-গালাজ ও তার অপকর্মের বিষয়ে নিষেধ করলে সে মিথ্যা মামলায় জড়ানোর হুমকি দেয়। এই বিষয়ে সমাধানের জন্য স্থানীয় কয়েকজনের মধ্যস্থতায় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উভয় পক্ষকে নিয়ে আমার বসত বাড়িতে সালিশ বৈঠকের বসেন। আজ শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে সালিশ বৈঠকে প্রতিপক্ষ ৩০-৩৫ জন লোক নিয়ে হাজির হয়। সালিশ চলাকালে প্রতিপক্ষের লোকেরা শালিশ মানবে বলে শালিশকারকগণের সম্মুখে আমার পরিবারের লোকজনদের অশালীন ভাষায় গালি গালাজ করতে থাকে। এর প্রতিবাদ করলে বিবাদী তার লোকজন ধারালো দা, লাঠি ও কিরিচ দিয়ে আমাদের উপর হামলা করে রক্তাক্ত জখম করে। আমার স্ত্রীর গলায় থাকা এক ভরি স্বর্ণের চেইন চিনিয়ে নেয়। শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতপ্রাপ্ত হলে স্থানীয়রা আমাদের উদ্ধার করে উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। একপর্যায়ে বিবাদীরা আমার বাড়িতে প্রবেশ করে বিভিন্ন আসবার পত্র ভাঙচুর করে। এ সময় মো. ইসলাম আমার বক্স খাটের ড্রয়ার থেকে নগদ ৪০ হাজার টাকা ও ৩টি দামী মোবাইল ফোন নিয়ে ফেলে। স্থানীয় এক যুবক জানান, সালিশ বৈঠকে উপস্থিত লোকজন বাধা নিষেধ করলে উল্টো তাদেরকে গালি গালাজ করে আহত পরিবারকে খুন করে লাশ গুম করার হুমকি দিয়ে বীরদর্পে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

এ বিষয়ে জাফর আলম বাদি হয়ে উখিয়া থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে উখিয়া থানার তদন্ত ওসি নুরুল ইসলাম মজুমদার বলেন, এখন পর্যন্ত অভিযোগ হাতে আসেনি। যদি কেউ অভিযোগ করেন তবে তদন্তপূর্বক দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পূর্বকোণ/কায়সার-আরপি

The Post Viewed By: 116 People

সম্পর্কিত পোস্ট