চট্টগ্রাম শনিবার, ৩০ মে, ২০২০

নির্দেশনা মেনে জুমার নামাজ আদায়

৯ মে, ২০২০ | ৭:২৮ পূর্বাহ্ণ

মুহাম্মদ নাজিম উদ্দিন

বাইরে ঠিকই জটলা

নির্দেশনা মেনে জুমার নামাজ আদায়

রাষ্ট্রীয় নির্দেশনা মেনে গতকাল (শুক্রবার) পবিত্র মাহে রমজান মাসের দ্বিতীয় জুমা আদায় করেছেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানেরা। বাইরে জটলা থাকলেও ভিতরে নির্দেশনা মেনে নামাজ আদায় করা হয়। প্রতিটি মসজিদের সামনে সাবান ও জীবাণুনাশক দিয়ে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখা হয়। জুমার নামাজ শেষে করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে দেশবাসীকে রক্ষা করার জন্য আল্লাহতায়ালার কাছে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।
জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুফতি অছিয়র রহমান পূর্বকোণকে বলেন, সরকারি নির্দেশনা মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কাতারে দাঁড়িয়েছেন মুসল্লিরা। তারা মুখে মাস্ক ও জায়নামাজ নিয়ে মসজিদে প্রবেশ করেছেন। এছাড়াও প্রতিটি মসজিদে জীবাণুনাশক ও সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখার জন্য সবাইকে নিদের্শনা দেওয়া হয়েছে। তবে অনেকে মুখে মাস্ক ও জায়নামাজ ছাড়া মসজিদে এসেছেন। তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ এখনো রয়েছে। তাই নিজে ও পরিবার-পরিজনকে সুরক্ষিত রাখার জন্য মুখে মাস্ক পরে মসজিদে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করেছেন এ বিশিষ্ট আলেম। তিনি বলেন, জায়নামাজ না থাকলেও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন বড় গামছা নিয়ে মসজিদে আসবেন।
মসজিদে নামাজ আদায়ে মুসল্লিদের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়ায় সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে মুফতি অছিয়র রহমান বলেন, সরকারি বিধি-নিষেধ মেনে মসজিদে আসা ও নামাজ আদায় করা সকলের নৈতিক দায়িত্ব। ঘর থেকে ওজু করে সোজা মসজিদে আসার জন্য আহ্বান করেছেন তিনি। তিনি বলেন, বাসা থেকে বের হয়ে পথিমধ্যে কোনো দোকান, জনসমাগম স্থানে উপস্থিত না হয়ে সোজা মসজিদ ও বাসায় ফিরে যাওয়া উচিত। এতে পরিবার-পরিজন ও আশপাশের লোকজন অনেকটা সুরক্ষিত থাকবে।
করোনাভাইরাস সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার পর মসজিদ ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানেও নামাজ আদায়ে বিধি-নিষেধ জারি করে সরকার। জুমা, তারাবির নামাজ ঘরে আদায় করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল। সিয়াম-সাধনার মাস রমজানে ধর্মপ্রাণ মুসলমানেরা সরকারি নির্দেশনা মেনে নামাজ আদায় করে চলেছেন।
সরকার বিধি-নিষেধ কিছুটা শিথিল ও শর্ত আরোপ করে মসজিদে নামাজ আদায়ের ঘোষণা দেয়। সরকারের এই ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়েছেন মুসলমানেরা। গতকাল ছিল রমজানের দ্বিতীয় জুমার দিন। সরকারি নিদের্শনা মেনেই নামাজ আদায় করেছেন মুসল্লিরা।
নগরীর আন্দরকিল্লা শাহী জামে মসজিদের প্রবেশ পথে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখা হয়েছিল। সরকারি নিদের্শনা মেনেই নামাজ আদায় করা হয়েছিল বলে জানান খতিব সৈয়দ মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন তাহের জাবেরী আল-মাদানীর একান্ত সচিব।
সচিব হাসান মুরাদ বলেন, ১টা ১৫ মিনিটের মধ্যেই জুমার নামাজ শেষ করা হয়েছে। তিনি বলেন, সরকারি নির্দেশনা মেনে ছোট সুরা পাঠ করে নামাজ আদায় করা হয়েছে। স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় নামাজে মুসল্লির উপস্থিতি অনেক কম ছিল। খতিবের আহ্বানে মুসল্লিরা সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই কাতার হয়েছেন। সংক্ষিপ্ত সময়ের মধ্যে নামাজ শেষ করা হয়েছে।
গাউসিয়া কমিটি চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সভাপতি আলহাজ মাহবুবুর রহমান জানান, ঘর থেকে ওজু করে আসা ও সুন্নাত নামাজ ঘরে আদায় করে মসজিদে আসার জন্য মুসল্লিদের প্রতি অনুরোধ করা হয়েছে। মুসল্লিদের বেশির ভাগই তা মেনে জুমার নামাজ আদায় করেছেন। তিনি বলেন, মসজিদে ঢোকার পথে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। নামাজ আদায়ের সময় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা হয়েছে। অন্যান্য সময়ের তুলনায় মসজিদে মুসল্লির সংখ্যা কম ছিল। তাই সামাজকি দূরত্ব বজায় রাখায় সহায়ক হয়েছে।

The Post Viewed By: 102 People

সম্পর্কিত পোস্ট