চট্টগ্রাম রবিবার, ৩১ মে, ২০২০

বাঁশখালীতে বাইসাইকেলের হাওয়া ছেড়ে দেওয়ায় সংঘর্ষে আহত ৩

৭ মে, ২০২০ | ৪:১৮ অপরাহ্ণ

বাঁশখালী সংবাদদাতা

বাঁশখালীতে বাইসাইকেলের হাওয়া ছেড়ে দেওয়ায় সংঘর্ষে আহত ৩

বাঁশখালী উপজেলার ছনুয়া ইউনিয়নের ছোট ছনুয়া এলাকায় লবণ মাঠের চাষীর বাইসাইকেলের চাকার হাওয়া ছেড়ে দেয়াকে কেন্দ্র করে পেকুয়া উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের সিন্দি পাড়ার বাসিন্দা ও ছনুয়া ইউনিয়নের ছোট ছনুয়া গ্রামের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ৩ জন আহত হয়েছে।  তারা হলেন ছনুয়া ইউনিয়নের ছোট ছনুয়ার মৃত মৌলভী মোহাম্মদ হোছাইনের ছেলে মাহবুবুর রহমান (৫৮),তার ছেলে তৌহিদুল ইসলাম (২৭), মোর্শেদুল ইসলাম (২০)। অপরজনের নাম পাওয়া যায়নি। আহতরা বাঁশখালী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন। 

বৃহস্পতিবার (৭ মে) সকাল ১০টার দিকে বাইসাইকেলের চাকার হাওয়া ছেড়ে দেয়ার ঘটনায় দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে। সংঘর্ষের ঘটনার পর এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বাঁশখালী উপজেলার ছনুয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডে ছোট ছনুয়া এলাকায় গোলাম শরীফের মালিকানাধীন ৪ কানি লবনের মাঠে চাষী হিসেবে মাহবুবুর রহমান দীর্ঘদিন থেকে চাষাবাদ করে আসছিল। একই ভাবে পেকুয়া উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের সিন্দি পাড়ার আনছারুল ইসলাম টিপুর মালিকানাধীন ৫০ কানি লবন মাঠ রয়েছে। এ লবন মাঠের জমি দেখভাল করে মোহাম্মদ আজম লবন মাঠ চাষ করে আসছিল। ছনুয়া নিজ বাড়ী থেকে ২কিলোমিটার দুরবর্তী লবন মাঠ স্থানে বাইসাইকেল নিয়ে মাহবুবুর রহমান(৫৮) লবন মাঠে যাওয়ার পর বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে রাজাখালী সিন্দিপাড়ার ১ যুবক বাইসেকেলের চাকার হাওয়া ছেড়ে দেন। এই নিয়ে যুবকটির সাথে মাহবুব রহমানের সাথে তর্কাতর্কি ও হাতাহাতি হলে পার্শ্ববর্তী পেকুয়া উপজেলার রাজাখালী থেকে ছনুয়া জল কদর খাল নৌকা যোগে পাড়ি দিয়ে মাহবুবুর রহমানের উপর হামলা করে। এসময় তার চিৎকারে প্রতিবেশী ও পার্শ্ববর্তী লবন মাঠে কাজ করা ছেলেরা এগিয়ে আসলে তাদের উপরও হামলা করে দুর্বত্তরা পালিয়ে যায়।

আহত লবন চাষী মাহবুবুর রহমান  বলেন, দীর্ঘদিন থেকে বর্গাচাষী হিসেবে ৪ কানি জমি লবন চাষ করে জীবিকা নির্বাহ করছিলাম। পেকুয়া উপজেলার ব্যক্তিমালিকানাধীন লোকজনের জমিও ছোট ছনুয়ায় রয়েছে। তারাও এখানে নিয়মিত আসা যাওয়া করে। আমি বাড়ী থেকে বাইসাইকেল নিয়ে লবন মাঠে আসি। রাজাখালীর টিপু মিয়ার মালিকানাধীন লবন মাঠ জমিতে চাষ করা লবন চাষীরা বাই সাইকেলের হাওয়া ছেড়ে দেয়। প্রায় সময় সময় এর প্রতিবাদ করতে গিয়ে নাজেহাল হতে হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে ১০টার দিকে ১ যুবক হাওয়া ছেড়ে দেওয়ার সময় রাজাখালী ইউনিয়নের মোহাম্মদ আজম ও তারেক সহ আরো ৬-৭জন লোকজন এসে দা, কিরিচ, লাঠি, মাস্তুল নিয়ে হামলা করে পালিয়ে যায়।

 পেকুয়া উপজেলার  রাজাখালীর আনছারুল ইসলাম টিপুর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, সাইকেলের হাওয়া ছেড়ে দেয়া কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা আমার জানা নেই। সামান্য ৫ টাকার হাওয়ার জন্য ঘটনা হবে কেন। বিষয়টি তিনি খোঁজ নিয়ে দেখবেন বলে জানান। আমি ঘুমিয়েছিলাম এই মাত্র ঘুম থেকে উঠলাম।

বাঁশখালী উপজেলার ছনুয়া ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোহাম্মদ রেজাউল করিম বলেন, সংঘর্ষের ঘটনার পর পেকুয়ার জমির মালিকদের সাথে মুঠোফোনে কথা হয়েছে। তারা এই ভুলবুঝাবুঝিকে সামাজিক বৈঠকের মাধ্যমে সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন।

বাঁশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল করিম মজুমদার বলেন, ছনুয়ায় সংঘর্ষের ঘটনায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে নাই। অভিযোগ পেলেই তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পূর্বকোণ/পিআর

The Post Viewed By: 149 People

সম্পর্কিত পোস্ট