চট্টগ্রাম সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০

পেকুয়ায় দা-বাহিনীর হাতে সাবেক মেম্বারসহ আহত ৪

৫ মে, ২০২০ | ৩:২০ অপরাহ্ণ

চকরিয়া-পেকুয়া সংংবাদদাতা

পেকুয়ায় দা-বাহিনীর হাতে সাবেক মেম্বারসহ আহত ৪

কক্সবাজারের পেকুয়ায় তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে একই পরিবারের চারজনকে কুপিয়ে ও মারধর করে জখম করেছে দা-বাহিনীর সদস্যরা।

সোমবার (৪ মে) রাত সাড়ে ৯টার দিকে টইটং ইউপি ওয়াজ খাতুন পাড়া এলাকায় এঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- একই এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য মৃত ফকির মুহাম্মদের ছেলে রুহুল আমিন (৪৮), তার বড় ভাই রাজা মিয়া (৬৫), স্ত্রী ফজলু আক্তার (৩৭) ও মিজানুর রহমানের স্ত্রী মোবারেকা বেগম (২৭)। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদেরকে পেকুয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে চিকিৎসা দিচ্ছে।

ঘটনাটি তাৎক্ষনিকভাবে পেকুয়া থানার ওসি কামরুল আজমকে অবগত করলে তিনি আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান।

সাবেক ইউপি সদস্য রুহুল আমিন বলেন, গতকাল ইফতারের আগে কিছু মানুষ জড়ো হয়ে গল্পে মেতে ওঠলে তাদের সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার জন্য বলি। ওই সময় ফজলু মোড়া এলাকার মৃত আবদুল মতলবের ছেলে আবু তালেব, আবদুল নবীর ছেলে জমির হোসেন, আবদুল মজিদের ছেলে আবদুল মালেক আমার সাথে তর্কে জড়িয়ে পড়ে। তারা সবাই ঘাতক দা-বাহিনীর সদস্য হওয়ায় আমি সেখান থেকে সরে যায়। তর্কাতর্কির ঘটনার জের ধরে সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে তাদের তিনজনের নেতৃত্বে আবু তালেবের ছেলে নেজাম, জমির হোসেনের ছেলে মিজান ও মিনহাজ, আবদুল মালেকের ছেলে জামাল হোসেন, রাশেদ মিয়া ও খোরশেদ, সামশুল আলমের ছেলে বাইক্যাসহ আরো বেশ কয়েকজন দা-বাহিনীর সদস্য বাড়িতে হামলা চালায়। একপর্যায়ে বাড়ির ভিতর অবস্থান নিয়ে ভাংচুর শুরু করে। এঘটনায় আমরা প্রতিবাদ করলে তাদের হাতে থাকা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমাদের চারজনকে কুপিয়ে জখম করে। এঘটনায় হাসপাতলে ভর্তি হলে অথবা মামলা করলে প্রাণে হত্যা করবে বলে হুমকি দিয়ে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আমাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

পেকুয়া থানার ওসি কামরুল আজম বলেন, আহতেরা থানার এসেছিল। তাদেরকে চিকিৎসা নিতে বলেছি। এ ঘটনায় অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 302 People

সম্পর্কিত পোস্ট