চট্টগ্রাম শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

করোনার মাঝেও মার্চে ৯৫২ কোটি টাকার ভ্যাট আদায় চট্টগ্রামে

১৮ এপ্রিল, ২০২০ | ৭:৩৫ অপরাহ্ণ

পূর্বকোণ ডেস্ক

করোনার মাঝেও মার্চে ৯৫২ কোটি টাকার ভ্যাট আদায় চট্টগ্রামে

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের ঝুঁকি উপেক্ষা করে চট্টগ্রামে নির্ধারিত সময়ে মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) রিটার্ন দাখিল করেছেন ৫ হাজার ২’শ ব্যবসায়ী। এতে তারা সরকারকে ৯৫২ কোটি টাকা ভ্যাট জমা দিয়েছেন।- বাসস

গতকাল  শুক্রবার (১৭ এপ্রিল) চট্টগ্রামের ভ্যাট কমিশনার মোহাম্মদ এনামুল হক এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, চলতি বছরের মার্চ মাসের রিটার্ন জমা দেওয়ার জন্য সরকার ১২-১৫ এপ্রিল সকাল ১০টা থেকে ১টা পর্যন্ত ব্যাংক খোলা রাখে। এ সময় চট্টগ্রামে ৫ হাজার ২০০ ব্যবসায়ী ২৪টি সার্কেল ও অনলাইনে ভ্যাট রিটার্ন দাখিল করেন। এর বিপরীতে রাজস্ব আদায় হয়েছে ৯৫২ কোটি টাকা।

তিনি বলেন, করোনা প্রতিরোধে সরকারি ছুটি চলাকালে শুধুমাত্র ভ্যাট রিটার্ন দাখিলের সুবিধার্থে সরকারি সাধারণ ছুটির সময়ে সীমিত আকারে ভ্যাট সার্কেল অফিসগুলো ১২ এপ্রিল থেকে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত খোলা রাখা হয়েছে। সীমিত সময়ের মধ্যে অনলাইন ও ম্যানুয়ালি ৫ হাজার ২০০ ব্যবসায়ী ভ্যাট জমা দেন। দেশের বাণিজ্যিক রাজধানী খ্যাত চট্টগ্রামে গত মার্চ মাসের ৯৫২ কোটি টাকা মূল্য সংযোজন কর আদায় হয়েছে।

দেশে এ দুর্যোগ মুহূর্তে যে ব্যবসায়ীরা ভ্যাট জমা দিয়েছে তাদেরকে চট্টগ্রাম ভ্যাট কমিশনের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানিয়ে ভ্যাট কমিশনার মোহাম্মদ এনামুল হক বলেন, এসময়ে ব্যবসায়ীরা সরকারের পাশে এসে দাড়িয়েছে এটি অনেক বড় ব্যাপার।

তিনি আরও জানান, চট্টগ্রামে প্রায় ১৫ হাজার ভ্যাট নিবন্ধিত ব্যবসায়ী রয়েছেন। আদায়ের লক্ষ্য ছিলো মাসে ১ হাজার ১০০ কোটি টাকা। আইন অনুযায়ী যারা ভ্যাট পরিশোধ করেননি তাদের জরিমানা হবে।

সূত্র জানায়, প্রতিটি সার্কেল অফিসে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশ কঠোরভাবে পালন করা হয়। এসময় প্রতিটি সার্কেলে কার্যক্রম চালানো হয় করোনা প্রতিরোধের সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে। বিশেষ করে কর্মকর্তারা পিপিই পরে রিটার্ন জমা নেন। আর প্রবেশের সময় করদাতাদের হাত ধোয়ার জন্য স্যানিটাইজার রাখা হয়। জনসমাগম এড়াতে রিটার্ন দাখিল শেষে দ্রুত অফিস ত্যাগ করতে বলা হয় সবাইকে।

এনবিআরের তথ্যমতে, সরকারি নির্দেশনার কারণে ২৫ মার্চ থেকে প্রায় সব প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। কিন্তু নতুন মূসক আইন অনুযায়ী, প্রতি মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে রিটার্ন জমা না দিলে ১০ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে। করদাতাদের জরিমানা এড়াতে ও আইনি বাধ্যবাধকতা থাকায় এনবিআর শুক্রবার (৯ এপ্রিল) ভ্যাট রিটার্নের বিষযে নির্দেশনা জারি করে। যাতে বলা হয়, ভ্যাট আইন অনুযায়ী প্রতি মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে ভ্যাট রিটার্ন দাখিলের বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
The Post Viewed By: 223 People

সম্পর্কিত পোস্ট