চট্টগ্রাম রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

কালবৈশাখী তাণ্ডবে মহেশখালীতে লবণ মাঠের ব্যাপক ক্ষতি

৪ এপ্রিল, ২০২০ | ১০:৫৩ অপরাহ্ণ

মহেশখালী সংবাদদাতা

কালবৈশাখী তাণ্ডবে মহেশখালীতে লবণ মাঠের ব্যাপক ক্ষতি

হঠাৎ আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হয়ে কালবৈশাখী বৃষ্টিতে কক্সবাজারের মহেশখালীতে বিভিন্ন লবণ মাঠের উৎপাদনের কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেছে। বছরের প্রথম বৃষ্টি ও অপরদিকে কাল বৈশাখীর তান্ডবে উপজেলার-প্রান্তিক লবণ চাষিদের মাঠের লবণ ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আজ শনিবার (৪ এপ্রিল) বিকাল ৪ টার সময় কালবৈশাখী তান্ডব শুরু হয়।
চাষীরা জানান, মাঠে কাজ করার সময় হঠাৎ দমকা হাওয়া ও বৃষ্টির কারণে মাঠে উৎপাদিত লবণের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ভেসে গেছে মাঠের লবণ। মাঠের প্রান্তিক চাষীরা বাম্পার উৎপাদনে খুশি হলেও বৃষ্টিতে লবণ ভেসে যাওয়ায় হতাশ হয়ে পড়েছে তাঁরা।
উপজেলার কালারমারছড়া ইউনিয়নের উত্তরনলবিলা লবণ চাষী মো. আলমের সঙ্গে কথা হলে জানান, এক একর জমিতে লবণ চাষ করতে খরচ হয় এক লাখ ৫০ হাজার টাকা। লবণ উৎপাদন হয় প্রায় সাত শত ৫০ মণ। বর্তমান বাজার মূল্য অনুযায়ী লবণ বিক্রি করলে, মুল্য দাড়াবে এক লাখ ৩০ হাজার টাকা মতো। লাভের আশা দূরে থাক, আসল খুঁজে না পাওয়ায় দুচিন্তায়, হতাশাগ্রস্ত হয়ে মানবেতর দিনযাপন করছে লবণের সাথে সংশ্লিষ্টরা।
তবে প্রান্তিক লবণ চাষিদের দুঃখ দুরর্দশার কথা চিন্তা করে হলেও লবণের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করা হোক। কালবৈশাখী তাণ্ডবে উপজেলার মাতারবাড়ী, ধলঘাটা,কালামারছড়া, হোয়ানক, বড় মহেশখালী, কুতুবজোম ও পৌরসভার লবণ চাষীদের মাঠের লবণ বৃষ্টির পানিতে ভেসেগিয়ে ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে।
মহেশখালী উত্তর নলবিল বিসিক লবণ প্রর্দশনী কেন্দ্রের প্রধান মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান পূর্বকোণকে বলেন, আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হয়ে বৃষ্টি হলে চাষীরা লবণ ভেসে যাওয়ার ভয়ে লবণ পলিটিন গুঁড়িয়ে নিয়েছে। তবে তেমন কোন ক্ষয়ক্ষতি বেশি হয়নি।
পূর্বকোণ/হোবাইব-আরপি

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
The Post Viewed By: 145 People

সম্পর্কিত পোস্ট