চট্টগ্রাম সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

ফটিকছড়ির খিরামে সহিংসতায় আহত ৪, আটক ১

১৯ মার্চ, ২০২০ | ১:৩৯ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা, নাজিরহাট

ইউপি কার্যালয় তছনছ

ফটিকছড়ির খিরামে সহিংসতায় আহত ৪, আটক ১

ফটিকছড়ি উপজেলার ২১নং খিরাম ইউনিয়নে সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। এতে ইউপি কার্যালয় তছনছসহ আহত হয়েছেন ৪জন। আহতরা হলেন খিরাম চৌমুহনী এলাকার মৃত আব্দুর রহীমের ছেলে মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর (৫০), ফুলমিয়ার ছেলে মুহাম্মদ জসীম (২৬), নূরুল আলমের ছেলে মুহাম্মদ জমির ও অজিত রায়ের ছেলে কাঞ্চন রায় (২৬)। এদের মধ্যে জাহাঙ্গীরের অবস্থা আশংকাজনক তিনি নগরীর চমেক হাসপাতালে ভর্তি আছেন। ঘটনায় স্থানীয়রা আলাউদ্দিন (৩০) নামের একজনকে পুলিশকে সোপর্দ করে। পুলিশ জানিয়েছেন তার বিরুদ্ধে ফটিকছড়ি থানায় মারামারির ৩টি মামলা রয়েছে। জানাগেছে, অবৈধ গাছ বোঝাই চাঁদের গাড়ির টোকেন’কে কেন্দ্র করে এঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গত (১৭ মার্চ) রাত ৯টার দিকে চৌমুহনী বাজারে হায়দার, কামাল, নেজাম গংদের সাথে আহত জাহাঙ্গীরের বাড়াবাড়ি হয়। এতে এক পর্যায়ে জাহাঙ্গীরকে ধাওয়া করে প্রতিপক্ষ। জাহাঙ্গীর আত্মরক্ষায় খিরাম ইউপি কার্যালয়ে ঢুকে পড়ে। ওই সময় কার্যালয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান উপস্থিত ছিলেন। তাঁর সামনে বেধডক পিটানো হয়ে জাহাঙ্গীরকে। তাকে বাঁচাতে গিয়ে আহত হন মুহাম্মদ জাসীম। পরে, চেয়ারম্যানের সহায়তার প্রাণে রক্ষা পায় রক্তাক্ত জাহাঙ্গীর। পরদিন অর্থাৎ গতকাল (১৮ মার্চ) সকালে ওই ঘটনার জের ধরে একই ব্যক্তিরা জমির ও কাঞ্চন রায়কে মেরে রক্তাক্ত করে। জানতে চাইলে খিরাম ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন জানান, ওই রাতে করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কার্যালয়ে বৈঠক করছিলাম। এমতাবস্থায় আহত জাহাঙ্গীর দৌড়ে কার্যালয়ে ঢুকে পড়ে। তার পিছনে হায়দার, কামাল আর নেজামসহ কয়েকজন আমার সামনে যা আছে তা দিয়ে জাহাঙ্গীরকে পিটায়। পরে, তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় রক্ষা করে চিকিৎসার ব্যবস্থা করি। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আইনানুগ ভাবে সামনের দিকে এগুবেন বলে তিনি জানিয়েছেন। জানতে চাইলে ফটিকছড়ি থানার অফিসার্স ইনচার্জ বাবুল আখতার জানান, খবর পেয়ে পুলিশ রাতে এবং দিনে দুই দফা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এখনো কোন অভিযোগ পায়নি।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
The Post Viewed By: 79 People

সম্পর্কিত পোস্ট