চট্টগ্রাম শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

রাউজানে প্রবাসীর স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

১৮ মার্চ, ২০২০ | ২:৫২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা, রাউজান

রাউজানে প্রবাসীর স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

রাউজানের কদলপুর ইউনিয়ন থেকে প্রবাসীর স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। গতকাল (মঙ্গলবার) রাত পৌনে ৮টার দিকে ইউনিয়নের মধ্যম কদলপুর গ্রামের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মালেকুজ্জামান চৌকিদার বাড়ি থেকে উদ্ধারকৃত ওই গৃহবধূর নাম রুবি আকতার (৩৪)। তিনি ওই বাড়ির কাতার প্রবাসী মো. আলমগীরের স্ত্রী। তাদের এক ছেলে ও দুই মেয়ে রয়েছে।
ওয়ার্ড মেম্বার কমল চক্রবর্তী বলেন, ‘বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে রুবি আকতার নিজ ঘরে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় থাকার কথা জানতে পারি। পরে থানা পুলিশকে খবর দেয়া হলে পুলিশের এস.আই টুটুন মজুমদারসহ সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থলে এসে নিজ বসতঘরের রুমে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ওড়না দিয়ে ঝুলন্ত লাশটি রাত পৌনে ৮টার দিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়’। কমল চক্রবর্তী আরো বলেন, ‘রুবির শাশুড়ি নিলু আকতার আমাকেসহ পুলিশকে বলেছেন ‘বিকেলে তিনি তার রুমে ছিলেন। নাতি-নাতনি লজিং মাস্টারের কাছে পড়তে বসেছিল অন্যরুমে। এক পর্যায়ে নাতি-নাতনি পেন্সিলের জন্য দাদীকে বললে, নাতি-নাতনিসহ দাদী রুবিকে তার রুমে ডাকতে যায়। তাতে কোন সাড়া না পাওয়ায় পরে দেখতে পান রুবি ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে রয়েছে। ওই রুমে কান্না করছিল ৫ মাস বয়সী রুবির কন্যাশিশুটিও। তৎক্ষণাৎ প্রতিবেশীদের খবর দিলে তারা এসে দরজার একাংশ ভেঙ্গে শিশুটিকে উদ্ধার করে’।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত রুবি আকতারের বাবার বাড়ি পার্শ্ববর্তী রাঙ্গুনিয়া উপজেলার দক্ষিণ পোমরা এলাকার কাজী পাড়ায়। তার বাবার নাম ছৈয়দুল ইসলাম আর মায়ের নাম ফেরদৌস বেগম। স্বামী মো. আলমগীরের বাবার নাম বদিউল আলম। তিনিও প্রবাসী। নিহতের ভাবী লিকু আকতার বলেন, ‘দশবছর আগে ভালোবাসার সম্পর্ক করে বিয়ে করেছিল রুবি আর আলমগীর। সম্পর্কের বিয়ের কারণে শাশুড়ি নিলু আকতার পুত্রবধূকে পছন্দ করতেন না। একারণে তাদের মধ্যে সবসময় ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকতো। মাঝে মাঝে রুবিকে শাশুড়ি বলতো ‘তোকে মেরে আমার ছেলেকে আরেকটি বিয়ে করাবো’। আর স্বামী আলমগীরও বেশ কিছুদিন আগে থেকে অন্য মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক করার কথা জানতে পারে রুবি। এ কারণে স্বামীর সঙ্গেও বনিবনা হচ্ছিল না। এ নিয়ে পারিবারিক দ্বন্দ্ব লেগেছিল সবসময়। তবে রুবির এ মৃত্যু কিভাবে হয়েছে তা আমরা সঠিক করে বলতে পারছিনা’।
রাউজান থানার ডিউটি অফিসার আবু বকর বলেন, ‘উদ্ধারকৃত মহিলার মৃতদেহের সুরতহাল করা হয়েছে। এরপর পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে’।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
The Post Viewed By: 104 People

সম্পর্কিত পোস্ট