চট্টগ্রাম রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

সরে দাঁড়াচ্ছেন কিছু বিদ্রোহী
সরে দাঁড়াচ্ছেন কিছু বিদ্রোহী

১৫ মার্চ, ২০২০ | ৫:০৪ পূর্বাহ্ণ

ইফতেখারুল ইসলাম

সরে দাঁড়াচ্ছেন কিছু বিদ্রোহী

আ. লীগের কাউন্সিলর প্রার্থী, জ্যেষ্ঠ নেতাদের রুদ্ধদ্বার বৈঠকে সিদ্ধান্ত

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের আরো কিছু বিদ্রোহী কাউন্সিলর প্রার্থী নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন। মূলত মেয়র প্রার্থী এম রেজাউল করিম চৌধুরীর বিজয় নিশ্চিত করতেই বিদ্রোহী কাউন্সিলরদের বাধা দূর করতে চায় আওয়ামী লীগ।
গত শুক্রবার এনিয়ে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী এম রেজাউল করিম চৌধুরীর নির্বাচনী কার্যালয়ে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপিসহ নগর আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ নেতারা। নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য ইতিমধ্যে বেশ কিছু বিদ্রোহী প্রার্থীর সাথে যোগাযোগ করেছেন জ্যেষ্ঠ নেতারা। আজ রবিবার আরোকটি রুদ্ধদ্বার বৈঠকশেষে কোন কোন ওয়ার্ডে বিদ্রোহীরা সরে দাঁড়াচ্ছেন তার চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করার সম্ভাবনা রয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, আওয়ামী লীগ মনোনীত ও বিদ্রোহী প্রার্থীদের মাঝে মূলত ব্যক্তি কেন্দ্রিক কোন্দল নির্বাচনে এসে পড়ার বিষয়টি বৈঠকের আলোচনায় উঠে আসে। তাদের মারামারির কারণে ভোটারদের মাঝে আতংক ছড়িয়ে পড়ার পাশাপাশি আওয়ামী লীগ নেতাদের কাছে আরেকটি বিষয় আতঙ্ক হিসেবে দেখা দিয়েছে। তাদের ধারণা আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীদের মাধ্যমে বিএনপি’র মেয়র প্রার্থী ‘বিশেষ সুবিধা’ পেয়ে যেতে পারেন। তাতে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী এম রেজাউল করিম চৌধুরী ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারেন। তাই তারা যেকোন উপায়ে বিদ্রোহীদের নিরস্ত করতে চান। বিদ্রোহীদের থামাতে জ্যেষ্ঠ নেতারা তাদের সাথে দফায় দফায় কথা বলছেন। আগামীর কমিটিতে পদ পদবি দেয়ার আশ^াস দিচ্ছেন। এতে কেউ কেউ আশ^স্থ হয়ে সরে দাঁড়ানোর মৌন সম্মতি জানিয়েছেন।
একাধিক আওয়ামী লীগ নেতার সাথে আলাপকালে তারা জানান, যে ৩৩টি ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে তারা নগর আওয়ামী লীগ, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ এবং মন্ত্রী-এমপি’দের কারো না কারো আশীর্বাদপুষ্ট। তাই তাদের বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিতেও কিছুটা বেগ পেতে হচ্ছে। তবে বিদ্রোহীদের নিরস্ত করার ক্ষেত্রে তারা এবার কার্যকর উদ্যোগ নেয়ার চেষ্টা করছেন।
গত শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টা পর অনুষ্ঠিত বৈঠকে ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, এম এ লতিফ এমপি, সিডিএ চেয়ারম্যান এম জহিরুল আলম দোভাষ, নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুলসহ জ্যেষ্ঠ নেতারা।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
The Post Viewed By: 9371 People

সম্পর্কিত পোস্ট